হীরায় মোড়া রাজার মুকুট!

আসিফ আজিজ, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হীরায় মোড়া মুকুট। ছবি: বাংলানিউজ

জোহর বারু, মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ার দক্ষিণের গুরুত্বপূর্ণ জোহর দারুল তাকজিম। জোহর বারু এ প্রদেশের বাঙালি অধ্যুষিত জেলা। রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে সোয়া ৩শ কিলোমিটার প্রায় সোজা সড়কটি এসে থেমেছে প্রযুক্তির উৎকর্ষের দেশ সিঙ্গাপুর সীমান্তে। জোহর প্রণালীতে বিভক্ত জোহর বারু ও সিঙ্গাপুর।

রাতে পৌঁছে একবার শহরের অলিগলিতে ঢুঁ মারা। সবার আগে এ পারে দাঁড়িয়ে সিঙ্গাপুর দেখার সাধ। সে সাধ পূর্ণ হতে দেরি হলো না বেশি। পরে সিঙ্গাপুর প্রণালী ধরে স্থানীয় সময় রাত ১২টার পর চলতে চলতে চোখ থামিয়ে দিলো ডাঙ্গা বে। সে গল্প পরে।হীরায় মোড়া মুকুট। ছবি: বাংলানিউজজমজমাট এ বিনোদন এলাকা থেকে একটু এগিয়ে এবার চোখ ধাঁধিয়ে দিলো বিশাল এক রাজমুকুট। পাশে বসা প্রবাসী বাঙালি ব্যবসায়ী এসএম আহমেদ জানালেন এটা হীরায় মোড়া! গাড়ি থামিয়ে তাই নেমে পড়া। জালান স্কুডি বা স্কুডি সড়ক নামেও জায়গাটির পরিচিতি রয়েছে। তবে সবচেয়ে বড় পরিচয় এই মুকুটের নিচ দিয়ে যেতে হয় সুলতানের বাড়ি। ১২০ একরের বেশি জায়গার উপর প্রতিষ্ঠিত বাসভবনটির অফিসিয়াল নাম ইস্তানা বুকিত সেরেইন।কেন্দ্রীয় শাসনের পাশাপাশি এখানে স্থানীয় সরকারের কিছু দায়িত্ব রয়েছে সুলতানের উপর। ১৮৮৬ সালে সুলতান আবু বকর রাজ মুকুট পরার পর এখন চলছে পঞ্চম সুলতানের শাসন। বর্তমান সুলতান ইব্রাহিম বিন আল মরহাম ইস্কান্দর। তিনিই থাকেন এখানে।হীরায় মোড়া মুকুট। ছবি: বাংলানিউজবাড়ির মূল ফটকের সামনে ২০১৫ সালে সুলতানের অভিষেক অনুষ্ঠানের দিন বসানো হয় এ রাজ মুকুটের রেপ্লিকা। যদিও স্থানীয় এবং দর্শনার্থীদের মধ্যে প্রচলিত রয়েছে রেপ্লিকা হলেও এতে রয়েছে কয়েকশ হীরা, পান্না। আদতে সেটা নয়। তবে রাতের আলোয় এর জেল্লা দেখলে যে কেউ হার মানবে মিথ্যার কাছে। কারণ সত্যিকারের হীরার মতোই জ্বলজ্বলে উজ্জ্বল এ মুকুট।হীরায় মোড়া মুকুট। ছবি: বাংলানিউজরাজার মূল মুকুটে রয়েছে সোনা, রুপা, ২ হাজার ৭শ ৪০ পিস হীরা, তিনটি লাল রুবিসহ বিভিন্ন মূল্যবান ধাতু। মুকুটের একেবারে উপরে রয়েছে ডায়মন্ড মোড়ানো তারকা, ৩৭ রুবি পাথরে লেখা আল্লাহ এবং ৫৮ টি পাথরে লেখা মোহাম্মদ। মোট ওজন ১.৬ কেজি।

ব্রিটিশ রাজা এডওয়ার্ডের মুকুটের আদলে এটা লন্ডনের জুয়েলার বেনসন তৈরি করেন। সে আদলে দু বছর আগে তৈরি এ নীলাভ মুকুট এখন জোহর বারুর পর্যটন আকর্ষণের প্রাণ। সবচেয়ে বেশি ছবি তোলা হয় এখানে। আলোর কারুকাজে আঁধার নামলেই এটা হয়ে ওঠে মোহনীয়। বাড়ে দর্শনার্থীদের ভিড়। একেবারে নিচে এসে দাঁড়ালে দেখা যায় এর আরেক রূপ। নীলকে বেজ ধরে পুরো কমপ্লেক্সের লাইটিং করা।হীরায় মোড়া মুকুট। ছবি: বাংলানিউজসুলতানের রয়েছে আবার নিজস্ব সেনাবাহিনী। তারাই দায়িত্বে এর নিরাপত্তার। জোহর বারু এলে এই রাজমুকুট না দেখে ফিরলে সত্যি মিস করবেন শহরের সবচেয়ে সুন্দর নিদর্শনটি।

... 
  আসিফ আজিজ, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর


 
বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৭
এএ

গাজীপুরে কুকুরের কামড়ে শিশুসহ আহত ১৯
ইউনিভার্সিটি মালায়াতে বিদেশি শিক্ষার্থীদের বেতন বাড়লো
দুগ্ধ ঘাটতি মেটাতে ফরিদপুরকেন্দ্রিক ‘হাব’
লাইসেন্স ছাড়াই ব্যবসা করছে স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স
ফের শুনানিতে উঠছে বাড়ি ভাড়ার রিট মামলা
মাংস আমদানি বন্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার
কিশোরগঞ্জে পরিত্যক্ত পিকআপ ভ্যান উদ্ধার
বান্দরবানে ইউপিডিএফ’র সভাপতি আটক
পাকিস্তানের বিপক্ষে কিউই টি-২০ স্কোয়াডে চমক
‘ভারত-ইসরায়েল আঁতাতকে ভয় পায় না পাকিস্তান’




Alexa