‘নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে বাধ্য করা হবে’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সভায় বক্তব্য রাখছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে গণআন্দোলনের মাধ্যমে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে সরকারকে বাধ্য করা হবে। মুক্ত খালেদা জিয়াকে নিয়েই এদেশে নির্বাচন হবে।

শনিবার (৭ জুলাই) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে খেলাফত মজলিস আয়োজিত ‘জাতীয় সংকট উত্তরণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অপরিহার্য’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সিনিয়র এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণকে ভয় পায়। কারণ জনগণ ভোট দিতে পারলে এই স্বৈরাচারী সরকারের কোনো চিহ্ন থাকবে না। তাই জনগণের ভোট ছাড়া আরেকটি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে। কিন্তু জনগণ সে খায়েশ পূরণ করতে দেবে না। বারবার একই কায়দায় জনগণকে ধোকা দেয়া যাবে না।

খেলাফত মজলিসের আমির অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম বীরপ্রতীক, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাওলানা আবদুর রকিব, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি এলডিপির মহাসচিব ড. রেদওয়ান আহমদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহ সভাপতি মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিংকন, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির মাওলানা সৈয়দ মজিবর রহমান, মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আবদুল লতিফ মাসুম, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৭, ২০১৮
এমএইচ/আরবি

মহাকবি কায়কোবাদের প্রয়াণ
ইতিহাসের এই দিনে

মহাকবি কায়কোবাদের প্রয়াণ

মতবিরোধে কুম্ভ, সুখবর পাবেন বৃষ
নরসিংদীতে এনা বাসের ধাক্কায় লেগুনার ৫ যাত্রী নিহত
বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগে মোস্তাফিজের ২ বছরের নিষেধাজ্ঞা
চৌদ্দগ্রামে বজ্রপাতে নিহত ১
‘প্রতারক’ প্রেমিকের খোঁজে গুজরাটে বাংলাদেশি তরুণী
সবুজবাগে নারীকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী আটক
‘সে শুধু আমার’
নির্বাচনে কে বিজয়ী হবে তা নির্ধারণ করবে জনগণ: লিটন
বেহালার সুর ও ওয়াফিয়া রহমানের শাস্ত্রীয় শিল্পের মুগ্ধতা