খালেদার চিকিৎসার ব্যয় দল বহন করবে: মোশাররফ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: খালেদার চিকিৎসায় রাজনৈতিক কারণে অবহেলা বা বিলম্ব করা হলে তার পরিণাম সরকারের জন্য শুভ হবে না জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা হোক। প্রয়োজনে তার চিকিৎসার সমূদয় ব্যয় আমাদের দল বহন করবে।

মঙ্গলবার (১২ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তিনি।

মোশাররফ বলেন, আমরা দাবি করছি, মূল মামলায় দেশের সর্বোচ্চ আদালতে জামিন পাওয়ার পরেও সরকার নানা অপকৌশলে দেশনেত্রীর মুক্তির পথে যেসব বাধার সৃষ্টি করছে তা বন্ধ করা হোক, যাতে জামিনে মুক্ত হয়ে দেশনেত্রী তার পছন্দের হাসপাতালে নির্ভরযোগ্য ডাক্তারদের চিকিৎসা সেবা নিতে পারেন।

সাবেক এ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সোমবার থেকে দেশনেত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিএসএমএমইউতে নেওয়ার কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু দেশনেত্রীকে এর আগেও সেখানে নেওয়া হলে সেখানকার ব্যবস্থাপনা, পরিবেশ এবং চিকিৎসা সেবার বিষয়ে তিনি অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন।

আইজি প্রিজন গণমাধ্যমে বলেছেন, কারাবিধি অনুযায়ী প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। এমন কোনো সিদ্ধান্ত না থাকায় দেশনেত্রীকে ওই হাসপাতালেই নিতে হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রাইভেট হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানকার চিকিৎসা ব্যয় কে বহন করবে সে সম্পর্কেও সিদ্ধান্ত প্রয়োজন হবে। তার এ বক্তব্য থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতামত এবং আমাদের বারবার অনুরোধ সত্ত্বেও ইউনাইটেড হাসপাতালে দেশনেত্রীকে ভর্তির ব্যাপারে সরকারের অনীহার কারণ বোঝা গেল।

মোশাররফ বলেন, আমরা দেশনেত্রীর উপযুক্ত চিকিৎসা চাই বলেই আপনাদের মাধ্যমে সরকারকে জানাতে চাই, প্রয়োজনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার সমূদয় ব্যয় আমাদের দল বহন করবে। কাজেই কাল বিলম্ব না করে তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হোক।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে দেশের বিশিষ্টজনদের সংগঠন ‘শত নাগরিক’ কমিটি সকাল ১০টার দিকে জাতীয় শহীদ মিনারে মৌন অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেয়। যথাসময়ে শত নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কবি, সাহিত্যিক, চিকিৎসক ও আইনজীবীরা শহীদ মিনারে উপস্থিত হলে পুলিশ বিনা উস্কানিতে মৌন অবস্থান কর্মসূচি পণ্ড করে দেয়। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
 
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ।

এদিকে, খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে দেওয়া এক আবেদনে তার বোনের চিকিৎসার ব্যয় পরিবারের পক্ষ থেকে বহন করা হবে বলে জানান। তিনি তার বোন খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির আবেদন করেন।  
 
বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৪ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৮
এমএইচ/আরবি

মুখোমুখি উরুগুয়ে-সৌদি আরব
‘তারেকের আয়ের উৎস জুয়া’
টার্মিনাল ও সেবক নিবাস নির্মাণে ১৪৬৪ কোটি টাকার প্রকল্প
কমলো স্বর্ণের দাম
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তরগুলোর সঙ্গে চুক্তি
তাড়াইলে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্র নিহত
বাজেটকে কল্যাণমুখী করতে হবে: বাদশা
নারীর উন্নয়নে সরকার দৃশ্যমান কাজ করছে
বরিশাল নগরে অভিযানে নামছে নির্বাচন কমিশন
মধুপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত