ভারত অন্য দেশের রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করে না: কাদের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের/

ঢাকা: ভারত অন্য কোনো দেশের রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ইন্ডিয়ান ডেমোক্রেসির একটা বিউটি আছে। তারা অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না। অন্যান্য দেশ এ বিষয়ে খুব দৌড়াদৌড়ি করে। অনেক দেশ ছোটাছুটি করে। ইন্ডিয়া এইগুলো করে না।

শনিবার (২১ এপ্রিল) বিকেলে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দলের ভারত সফরের প্রাক্কালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নে জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।
 
রোববার (২২ এপ্রিল) ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের ১৯ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল দিল্লি যাচ্ছেন। এ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
 
চলতি বছর একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের এই প্রতিনিধি দলের ভারত সফরকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। সেদেশের ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) আমন্ত্রণের আওয়ামী লীগের উচ্চ পর্যায়ের এই প্রতিনিধি দলের সফরের মধ্য দিয়ে বিজেপির সঙ্গে আওয়ামী লীগের সম্পর্কের উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখবে। এই সফরের প্রতিনিধি দলের নেতারা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ভারতের পার্লামেন্ট লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন এবং বিজেপির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।
    
ভারতে এই সফর সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আমাদের ক্ষমতার উৎস বাংলাদেশের জনগণ। বিজেপি এসে আমাদের জন্য ভোট চাইবে না, চাইতেও পারবে না। আমাদের এই সফর এটি মূলত পার্টি টু পার্টি প্রোগ্রাম। এখানে তাদের সঙ্গে আমাদের বোঝাপড়া বাড়বে। স্বার্থ ছাড়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে না। তবে ইন্ডিয়া মোর দেন এ নেইভার।
 
এদিকে ওবায়দুল কাদেরের এক বক্তব্যের বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা খরুল ইসলাম আলগীরের বক্তব্য প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঠিকই তো বলেছি। আমি এই রুম থেকে ওই রুমে যাওয়ার আগেও মারা যেতে পারি। উনি (মির্জা ফখরুল) বামপন্থী রাজনীতি করেছেন, তাই আল্লাহ-খোদায় বিশ্বাস কম।
 
আওয়ামী লীগের এ প্রতিনিধি দলটি রোববার সকালে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন। ওই দিন রাতে দিল্লিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের আয়োজনে নৈশ্যভোজে অংশ নেবেন তারা। পর দিন ২৩ এপ্রিল সকালে ভারতের লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও পার্লামেন্ট ভবন পরিদর্শন এবং লোকসভার অধিবেশন প্রত্যক্ষ করবে প্রতিনিধি দলটি। পরে বিজেপি নেতা এমজে আকবরের দেওয়া মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেবেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। এর পর বিকেলে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তারা। পরে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) সঙ্গে দ্বিপাক্ষীক আলোচনা শেষে নৈশ্যভোজে অংশে নেবেন আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের এ সদস্যরা।

এ প্রতিনিধি দলটি মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়ালে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। তিন দিনের এই সফর শেষে ২৪ এপ্রিল তারা ঢাকায় ফিরবেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৮ 
এসকে/এসএইচ

অঞ্জন’সে যোগ হচ্ছে নতুন দুই ব্র্যান্ড 
ইউরোপা লিগে নতুন রেকর্ড গ্রিজম্যানের
দেরাদুনে যাচ্ছেন না ইমরুল, তাসকিন!
ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা পৌঁছাচ্ছে প্রত্যন্ত অঞ্চলে
অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ফুলবাড়ী সীমান্তে ২ যুবক আটক
৯,৭৭৭ টাকায় কক্সবাজার ভ্রমণ!
যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক ফলপ্রসূ হয়েছে: মিন্ট থো
টেস্ট বাঁচাতে যোগ হচ্ছে ভিন্ন কিছু নিয়ম
রোজা রাখা যাবে তো? 
কালুরঘাটে বাস-টেম্পু মুখোমুখি সংঘর্ষের পর আগুন