শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে মামলা, গ্রেফতার ১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: প্রতীকী

পটুয়াখালী: পটুয়াখালীর কলাপাড়ার মহিপুর ইউনিয়নের সেরাজপুর গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মো. কাওসার ঘরামী (২২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার ধুলাসার ইউনিয়নের বাবলাতলা বাজার থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রেফতার করা হয়। কাওসার মহিপুরের সেরাজপুর গ্রামের সামসু ঘরামীর ছেলে এবং নিহত শিক্ষার্থীর চাচাতো ভাই।

এর আগে বুধবার (১৫ আগস্ট) নিহত শিক্ষার্থীর বাবা ইসমাইল ঘরামী অজ্ঞাত একাধিক ব্যক্তিকে আসামি করে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে মহিপুর থানায় একটি মামলা করেন।

পরিবার ও থানা পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টার দিকে একদল অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত ওই শিক্ষার্থীর ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করে অচেতন অবস্থায় তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। শঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুয়াকাটা হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর ওই শিক্ষার্থীর সৎ মা সালমা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিজানুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, পুলিশের একাধিক টিম প্রকৃত অপরাধীদের সনাক্ত করে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে। বৃহস্পতিবার কাওসার নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে, ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার রাতে দাফন সম্পন্ন করার হয় বলে পারিবারিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১৮
এমএস/আরবি/

দেবর-ভাবির পরকীয়ার বলি মনির
কোটালীপাড়ায় বৃদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা 
দৈনিক মজুরি ১০২ টাকা প্রত্যাখ্যান চা শ্রমিকদের
ক্যাপিটাল এফএম-এ এশিয়া কাপের লাইভ ফান কমেন্ট্রি
যশোরে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার
বিপদসীমার ১১ সে.মি. ওপরে যমুনার পানি
বগুড়ায় বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার 
এবার ন্যান্সি ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় জিডি
গর্ভকালীন সচেতনতামূলক কার্যক্রম জোরদারের নির্দেশ
৯ বছরে ২৬৬ কোটি বই বিনামূল্যে বিতরণ