গাবতলীতে যাত্রীদের ভিড়, নির্ধারিত সময়ে ছাড়ছে না বাস 

শাহেদ ইরশাদ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গাবতলীতে যাত্রীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ঈদুল ফিতরের ছুটিতে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় রয়েছে রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে। গন্তব্যের বাসগুলো নির্ধারিত সময়ে না ছাড়ায় গাবতলীতে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের ভিড় বাড়ছে।

শুক্রবার (১৫ জুন) সকালে গাবতলী বাস টার্মিনালে গিয়ে এমন দৃশ্য চোখে পড়েছে।

নির্ধারিত সময় বাস না ছাড়ায় বাড়ি ফেরা যাত্রীরা বাস কাউন্টারগুলোর বাইরে পার্কিং ইয়ার্ড, চা-মুদি দোকান ও খাবার হোটেলে সামনে বসে, দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন।গাবতলীতে যাত্রীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজবাস কাউন্টারগুলোর প্রতিনিধিরা বাংলানিউজকে জানান, দৌলতদিয়া ঘাটের পরে সাভারের নবীনগরে যানজটের কারণে কোনো বাসই নির্ধারিত সময়ে গাবতলী এসে পৌঁছাতে পারছে না। সে কারণে আমাদের গাড়িগুলো ছাড়তে দেরি হচ্ছে।

মাহমুদ হোসেন ঢাকার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। তিনি ফরিদপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে গোল্ডেন লাইন পরিবহনের সাড়ে ছয়টার গাড়ির টিকিট কিনলেও সকাল আটটা পর্যন্ত তার গাড়ি গাবতলী এসে পৌঁছায়নি।

স্ত্রী সন্তান নিয়ে একটি খাবার হোটেলের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন রফিকুল ইসলাম। যাবেন গোপালগঞ্জে। সকাল সাতটার গাড়ি এখনও গাবতলী আসেনি। কখন আসবে বাস কাউন্টার থেকে কোনো সময় জানানো হয়নি তাকে।

এদিকে লোকাল বাস সার্ভিসের যাত্রীদের গাবতলী বাস টার্মিনালে এসে অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। বাসস্ট্যান্ডে আসার পরেই পদ্মা লাইনসহ অন্য সব বাসে উঠার সুযোগ পাচ্ছেন। লোকাল বাসগুলোতে যাত্রীদের কাছ থেকে ১শ টাকার ভাড়া আদায় করা হচ্ছে ৩শ-৪শ পর্যন্ত। তবে ছাদে যাওয়ার জন্য গুনতে হচ্ছে ১শ টাকা ভাড়া। 

অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার বিষয়ে পদ্মা লাইন বাসের সুপারভাইজার আজগর আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সব গাড়ি এখন গাবতলী থেকে যাত্রী নিয়ে গেলেও পাটুরিয়া থেকে খালি ছেড়ে আসছে। আসার সময় যাত্রী পাওয়া গেলে ভাড়া কমানো যেতো।

অপরদিকে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গাবতলী বাস টার্মিনালে একটি র‌্যাব ক্যাম্প বসানো হয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে ট্রাফিক পুলিশের ক্যাম্প। গাবতলী টার্মিনাল এলাকায় সব অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পোশাকের বাইরে সাদা পোশাকেও আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫০ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০১৮
এসই/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঈদে বাড়ি ফেরা
সিলেটে ‘বিদ্রোহীদের’ বসানোর চেষ্টায় ২০ দল
তিনদিন ধরে পানি নেই বরিশাল সদর হাসপাতালে
ধামরাইয়ে ঐতিহ্যবাহী রথযাত্রা
বাগাতিপাড়ায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
এক্সেল লোড নিয়ন্ত্রণ বাতিল চাইলেন চেম্বার সভাপতি
কিশোরগঞ্জে জগন্নাথদেবের ১৩ কিলোমিটার রথযাত্রা
ভ্রাতৃত্বের এই বন্ধন সময়ের পরীক্ষায় অটল থাকবে 
সন্ত্রাস প্রতিরোধে বাংলাদেশ-ভারত সাফল্য পেয়েছে 
হারুন হত্যার স্বীকারোক্তি নুরের, মোবাইল উদ্ধার
শেখ হাসিনা বিশ্বের কাছে মানবতার নেত্রী হিসেবে পরিচিত