শিক্ষার্থীরা সরে গেলেও মহাসড়কে শ্রমিকদের পাল্টা অবরোধ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের ত্রিশালে কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মারপিট ও বাস ভাঙচুরের প্রতিবাদে ডাকা অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে এ অবরোধের সময় বাস ভাঙচুরের অভিযোগ এনে পাল্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বাস শ্রমিকরা।

রোববার (১৩ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে দোষীদের গ্রেফতারের আশ্বাস পেয়ে শিক্ষার্থীরা মহাসড়কের অবরোধ থেকে সরে যান।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) খন্দকার শাকের আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, মারপিট ও বাস ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত সময়ের মধ্যেই গ্রেফতার করা হবে। এ আশ্বাসেই শিক্ষার্থীরা মহাসড়কের বেলতলী পয়েন্ট থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করেন। ফলে ময়মনসিংহ-ঢাকা মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কিন্তু শিক্ষার্থীরা অবরোধ প্রত্যাহার করলেও অবরোধের সময় বাস ভাঙচুরের অভিযোগ এনে পাল্টা প্রতিবাদের ডাক দেন মোটর পরিবহন শ্রমিকরা। এর প্রতিবাদে তারাও এখন মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বলে জানান ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকিউর রহমান।

এর আগে মহাসড়কের বেলতলী এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবাহী বাসে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় ধান বোঝাই একটি ট্রাক। এতে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে স্থানীয়দের সঙ্গে তাদের কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে কয়েক শিক্ষার্থীকে মারপিট ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাঙচুর করে স্থানীয়রা।

এরই প্রতিবাদে রোববার বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ময়মনসিংহ-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৭ ঘণ্টা, মে ১৩, ২০১৮
এমএএএম/টিএ

দেশবাসীকে মাশরাফির ঈদ শুভেচ্ছা
ভাঙন আতঙ্কে ঈদ আনন্দ নেই কমলনগরে
খুলনায় ঈদের জামাতে মুসল্লিদের ঢল
রাজশাহীতে ঈদের জামাতে সন্ত্রাসবাদ পরিহারের আহ্বান 
ত্যাগের মহিমায় উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা
নামাজের পর চলছে পশু কোরবানি
জাতীয় ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হলো প্রধান জামাত 
সমুদ্র শহরের নিরাপত্তায় সাড়ে ৪শ’ নিরাপত্তাকর্মী
রাজধানীতে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত
গ্রেনেড হামলাকারীদের কেউ রক্ষা পাবে না