স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আসমা খাতুন ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় আসমা খাতুন (২৬) নামের এক গৃহবধূকে নির্যাতনের পর মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী বকুল হোসেনের (৩৫) বিরুদ্ধে।
 
 

সোমবার (১৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নের মাধবডাঙা গ্রামে নিজেদের বাড়িতে আসমার ওপর এ নির্যাতন চালানো হয়। পরে স্থানীয়দের সহায়তার আসমার বাবা ইসমাইল হোসেন ও অন্য স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
 
রাতে ধুনট থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া চলে আসছিলো। এ নিয়ে তাদের মধ্যে মারধর চলতো। বিভিন্ন সময় বকুল স্ত্রীকে শারীরিকভাবেও নির্যাতন করতেন বলে শোনা গেছে।   
 
‘সেই ধারাবাহিকতায় প্রায় ২০ দিন আগে স্বামী তার স্ত্রীর মাথার চুল কাঁচি দিয়ে কেটে দেয়। এরপর মাথাই ন্যাড়া করে দেয়। ওই গৃহবধূ এখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। এ ঘটনায় এখনও কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
 
স্থানীয়রা জানান, মাধবডাঙা গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে বকুল হোসেনের সঙ্গে প্রায় আট বছর আগে উপজেলার সদরপাড়া গ্রামের আসমার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই ছেলে সন্তান রয়েছে।
 
কিন্তু বিয়ের পর থেকেই নানা কারণে তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিলো না। এ কারণে প্রায়ই দু’জনের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হচ্ছিলো। স্ত্রীকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন বকুল। বিরোধ মীমাংসা করতে একাধিকবার সালিশ-বৈঠকও হয়। কিন্তু তাতেও কোনো সমাধান মেলেনি। উল্টো বকুল আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন।
 
গত ২৮ মার্চ আসমাকে মারপিট করতে থাকেন বকুল। একপর্যায়ে মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দেন। মেয়েকে নির্যাতনের খবর শুনে বাবা ইসমাইল দেখা করতে এলেও সুযোগ দেননি বকুল। শেষতক সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় মেয়েকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন ইসমাইল।
 
আসমা খাতুন বাংলানিউজের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ‘একাধিক বিয়ে, মাদকদ্রব্য সেবনসহ কারণে-অকারণে অনেকদিন ধরে স্বামী আমাকে নির্যাতন করে আসছে। নির্যাতনের পর মাথা পর্যন্ত ন্যাড়া করে দেয়। বাড়িতেও কাউকে খবর পাঠাতে দেয়নি। এমনকি ন্যাড়া করে দেওয়ার পর ঘরেই আটকে রাখে স্বামী।
 
ইসমাইল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, তিনি তার মেয়েকে নির্যাতনকারী স্বামী বকুল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
 
তবে বকুল হোসেন তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বাংলানিউজকে বলেন, ‘খুশকি হওয়ার কারণে স্ত্রী মাথা ন্যাড়া করেছে। তবে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হলেও স্ত্রীকে কখনও নির্যাতন করা হয়নি।’
 
বাংলাদেশ সময়: ০৪১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০১৮
এমবিএইচ/এইচএ/

কাঠের পুতুল | সুমাইয়া বরকতউল্লাহ্ 
দিনাজপুরে ট্রাকের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত
ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুলিশের চাকরি, আটক ৫
নারায়ণগঞ্জে অজ্ঞাতপরিচয় বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার
কিশোরগঞ্জে ২ ফার্মেসি মালিকের কারাদণ্ড
নীলফামারীতে ৩ দিনের নজরুল সম্মেলন
কুড়িগ্রামে ২২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী
রাজীবের মৃত্যুর পরও থামছেন না চালকরা
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ
গুলশানে ২০ দলীয় জোটের বৈঠক

Alexa