ডেমরায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আদালত

ঢাকা: রাজধানীর ডেমরা থানার কোনাপাড়া এলাকায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার ঘটনায় স্বামী জাহাঙ্গীর হোসেন রনিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার পরিবেশ আপিল আদালতের বিচারক মশিউর রহমান চৌধুরী আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

২০০৯ সালের ২২ জানুয়ারি রাজধানীর ডেমরা থানার কোনাপাড়ার পাড়াডগাইর এলাকার আল-আমীন রোডের একটি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

রায়ের বিবরণ থেকে জানা যায়, ওইদিন সকালে স্ত্রী হামিদা আক্তারের মোবাইলে একটি মিসকল আসে। ওই নম্বরে আসামি জাহাঙ্গীর হোসেন রনি ফিরতি ফোন করে একটি পুরুষের কণ্ঠ শুনতে পায়। পুরুষ লোকটি তার পরিচয় না দেওয়ায় রনি স্ত্রীকে পরকীয়ার সন্দেহ করেন।

এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে রনি রান্নাঘর থেকে কেরোসিন এনে স্ত্রী গায়ে ঢেলে দিয়াশলাই দিয়ে ভিকটিমের পরিধেয় সালোয়ার-কামিজে আগুন ধরিয়ে দেয়। গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ঘটনার ৭ দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯ জানুয়ারি তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বড় ভাই শামসুল হক বাদি হয়ে ওই বছরেরই ২৬ জানুয়ারি ডেমরা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি তদন্ত শেষে থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মীর আতাহার আলী আসামি জাহাঙ্গীর হোসেন রনিকে অভিযুক্ত করে ২০০৯ সালের ৩১ জুন আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

রায় ঘোষণার আগে বিচারক চার্জশিটের ১৬ জন সাক্ষির মধ্যে ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সংশ্লিষ্ট আদালতের স্পেশাল পিপি এএফএম রেজাউল করিম ও আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৮/আপডেট: ১৫৪২ ঘণ্টা
এমআই/ওএইচ/

সেই পেইন্টার জেসুসের মুরাল এখন ব্রাজিলের দেয়ালে
চিরচেনা বন্দরনগরী এখন ফাঁকা
৮ ম্যাচে ২১ গোল, ৪ পেনাল্টি
ফেভারিটের তকমা নিয়েই নামছে ব্রাজিল
আপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহারে সাবধানতা 
ময়মনসিংহে শীর্ষ মাদক সম্রাজ্ঞীর গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার
ঈদের পরদিনও কমলাপুরে ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড় 
নেইমারের নতুন হেয়ার কাট
ঈদের ছুটিতে বেড়ান পাহাড়-সমুদ্র-ঝরনা
অনাথের চিহ্ন মুছে দিচ্ছে এসওএস শিশু পল্লি