খুলনায় স্কুলছাত্র রাজিন হত্যার ঘটনায় ৫ জন আটক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ফাহমিদ তানভীর রাজিন

খুলনা: খুলনা পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র ফাহমিদ তানভীর রাজিন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো- রয়েল, সানি, আলিফ, জিসান ও সাগর। তারা সবাই অষ্টম ও নবম শ্রেণীর ছাত্র। রয়েলকে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন(র‌্যাব) ও বাকিদের পুলিশ আটক করে।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) রাতে হত্যাকাণ্ডের পর থেকে রোববার (২১ জানুয়ারি) দুপুর পর্যন্ত পুলিশ ও র‌্যাব মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

খালিশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন বাংলানিউজকে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) সহকারী পুলিশ কমিশনার এস এম আল বেরুনী জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানিয়েছে নিহত রাজিনের সঙ্গে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রীর  সম্পর্ক ছিলো। তারা একসাথে কোচিংয়ে পড়তো। নবম শ্রেণীর ছাত্র ফাহিম ওই মেয়েকে পছন্দ করতো। সে রাজিনকে ওই মেয়ের সঙ্গে কোচিংয়ে পড়তে নিষেধ করে। নিষেধ না শোনায়  শনিবার রাতে ফাহিম ও তার বন্ধুরা মিলে খুলনা পাবলিক কলেজ ক্যাম্পাসে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে রাজিনকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

এর আগে খুলনা পাবলিক কলেজের ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও প্রাক্তন ছাত্রদের পুনর্মিলনী-২০১৮ উপলক্ষে দু'দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শেষ দিন শনিবার রাতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলাকালে রাজিনের বুকে ছুরিকাঘাত করা হয়। তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজে (খুমেক) নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। রাজিনের বাবা শেখ জাহাঙ্গীর আলম মংলা বন্দরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী, মা রেহেনা বেগম পুলিশ লাইন স্কুলের শিক্ষিকা। দুই ভাইয়ের মধ্যে তানভীর ছোট।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০১৮
এমআরএম/এএটি

২৪ ঘণ্টার ‘কসাই’ ওরা 
জেলগেট থেকে ফিরে গেলো মহিলা দল
জিয়ার সমাধিতে বিএনপি নেতাদের শ্রদ্ধা
নগরবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা মেয়রের
বলিউড তারকাদের ঈদ শুভেচ্ছা
সলঙ্গায় ট্রাক-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে নিহত ১
ঈদ উপলক্ষে চলছে ‘বকশিস বাণিজ্য’
ঈদেও পদ্মাসেতুতে প্রকৌশলীদের ব্যস্ততা
নিজ নিজ এলাকায় না’ঞ্জের রাজনীতিকদের ঈদ উদযাপন
জ্বালাও-পোড়াও করলে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে