প্রতিশোধের জেরেই খুন হয় নাসিম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

পুলিশ হেফাজতে আসামি আসিফ

ঢাকা: প্রতিশোধ নিতে গিয়ে বাড্ডায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাসিম আহমেদ ইমাদ উদ্দিনকে (২৩) ছুরিকাঘাতে হত্যা করে গ্রেফতারকৃত আসিফ।

ঘটনার আগের দিন ৫ নভেম্বর (রোববার) রাতে অজ্ঞাত কারণে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ ও মারামারির ঘটনা ঘটে। ওইদিন রাতে ভুক্তভোগী নাসিম ও দুইজন মিলে আসামি আফিসকে মারধর করে। মূলত এ ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই রাতভর হত্যার পরিকল্পনা সাজায় আসিফ। 

বুধবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর গুলশানে ডিএমপির উপ-কমিশনারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার মোশতাক আহমেদ এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) মধ্যরাত থেকে বুধবার (১৫ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে কুমিল্লায় তার মায়ের বাড়ি থেকে আসামি আসিফকে (২১) গ্রেফতার করা হয়। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়। আসামির গ্রামের বাড়ি বরিশালের বাকেরগঞ্জের মঙ্গলশীতে। রাজধানীর বাড্ডা এলাকার বেপারীপাড়া মসজিদের পেছনে ইদ্রিস আলীর ভাড়া বাড়িতে বাবা সবুজ শিকদারের সঙ্গে থাকতো।

সংবাদ সম্মেলনে গুলশান জোনের ডিসি বলেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ৬ নভেম্বর (সোমবার) একটি ছুরি সঙ্গে নিয়ে বাসা থেকে বের হয় আসিফ। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাড্ডা থানা এলাকার পূর্ব বাড্ডা পোস্টঅফিস গলির নয়ন ডাক্তারের বাড়ির পাশে অপেক্ষা করে সে। ওই সময় নাসিম আসতে থাকলে আসিফ তার পেটে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে। 

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি জানায়, ঘটনার পরপরই সে পালিয়ে গুলশান গুদারাঘাট এলাকায় এসে তার বাবাকে ফোন দিয়ে বিষয়টি জানায়। মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হয়ে সে কুমিল্লায় তার মায়ের কাছে গিয়ে আত্মগোপন করে। 

বিপিএলকে কেন্দ্র করে হত্যাকাণ্ডটি সংগঠিত হয়েছে কিনা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ডিসি মোশতাক আহমেদ বলেন, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে এর কোনো সংশ্লিষ্টতা আমরা এখনও খুঁজে পাইনি। তবে এ সংক্রান্ত কিছু তথ্য আমাদের কাছে এসেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, বিপিএল অনেক জনপ্রিয়। রাজধানীর বিভিন্ন গলির দোকানগুলোতে এ খেলা নিয়ে বিভিন্ন পর্যায়ে বাজি ধরা হয়। এ বিষয়টি মনিটরিং করতে আমাদের বিট পুলিশ ও কমিউনিটিং পুলিশ সদস্যরা কাজ করছে। 

গত ৬ নভেম্বর সকালে রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন পোস্টঅফিসের গলি এলাকায় নিজ বাসার সামনে ছুরিকাঘাত করে নাসিমকে হত্যা করা হয়। নিহত নাসিম বেসরকারি মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বিবিএ তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। নয় মাস আগে তার বিয়ে হয়।

ঘটনার দিন রাতেই বাড্ডা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নাসিমের বাবা আলী আহমেদ সাইফ উদ্দীন। মামলা নম্বর ৭। মামলায় আসিফ শিকদার (২১), রমজান আলী (৩৮) ও আব্দুর রশিদসহ (৫০) অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জনকে আসামি করা হয়েছে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০১৭
এসজেএ/জেডএস


রেলে ১০৮৫ লেভেল ক্রসিং অবৈধ
মেসির ফেভারিট জার্মানি, ব্রাজিল, ফ্রান্স ও স্পেন
মিরপুর-১২ নম্বরে গার্মেন্টস শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ
ফুলবাড়ী‌তে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে ছাই
বিনয় সাহার ছানা মিষ্টির টানে সন্দ্বীপে

Alexa