Alexa

কামরুলের লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন কিশোরগঞ্জের এডিসি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জ: দারিদ্রকে জয় করে মেধাবী শিক্ষার্থী কামরুল ইসলাম বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। এরপর থেকে কলেজে ভর্তি হওয়া নিয়ে দেখা দেয় অনিশ্চয়তা। এমন অবস্থায় কামরুলের লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উপ সচিব তরফদার মো. আক্তার জামীল।

কামরুল ইটনা মহেশ চন্দ্র মডেল শিক্ষা নিকেতন থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দেন। ইটনা উপজেলার সদর ইউনিয়নের সড়কহাটির গ্রামের দিনমজুর মো. নায়েব আলীর তিন সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয় কামরুল ইসলাম। পরিবারের পাঁচ সদস্যের মুখে দুবেলা আহার তুলে দিতে দেশের বিভিন্নস্থানে শ্রম বিক্রি করেন নায়েব আলী। অন্যদিকে দিনমজুর বাবার অভাবের সংসার সামাল দিতে কামরুল নিজেও কৃষি শ্রমিক হিসেবে হাওরে কাজ করেছেন। তারপরও দারিদ্র্য থামাতে পারেনি কামরুলকে।

এ বিষয়ে কামরুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ভালো রেজাল্ট করলেও কলেজে ভর্তি হওয়ার মতো সামর্থ্য ছিল না আমার। ভেবেছিলাম আমার হয়তো আর লেখাপড়াই করা হবে না। কিন্তু জামীল স্যারের উৎসাহ ও সহায়তায় আমি আবার লেখাপড়া করব এটা ভাবতেই প‍ারছি না।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) উপ সচিব তরফদার মো. আক্তার জামীল বাংলানিউজকে জানান, কামরুলের কলেজে ভর্তির অনিশ্চিয়তার খবর পেয়ে মোবাইলে তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এরই মধ্যে তিনি সরকারি গুরুদয়াল কলেজের অধ্যক্ষ রামচন্দ্র রায়ের সঙ্গে কামরুলের কলেজে ভর্তির ব্যাপারে কথা বলেন। কামরুলের লেখাপড়া অব্যাহত রাখার ব্যাপারে কলেজ কর্তৃপক্ষেরও সহায়তা চেয়েছেন তিনি। এছাড়া কামরুলের লেখাপড়ার খরচ ছাড়াও থাকা-খাওয়ার ব্যয় নির্বাহের জন্যও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন সরকারি এই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ০০২১ ঘণ্টা, জুন ২০, ২০১৭
এসজে/এনটি


রিয়াজ-শাওন আবার
একদিকে উৎসাহ অন্যদিকে টেনশন
ইডিইউতে ভর্তি পরীক্ষা

একদিকে উৎসাহ অন্যদিকে টেনশন

পেঁয়াজের দাম সামান্য কমলেও চাল স্থিতিশীল
দৌলতপুরে পানিবন্দি কয়েক হাজার পরিবার
ব্র্যান্ড কিউ-এর ঈদ কালেকশন

Alexa