সকালে ঘুম ভেঙেই নয়!

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঘুম ভাঙার পর

একটি সুন্দর দিন চাইলে সকালে ঘুম থেকে উঠে যে কাজগুলো গুরুত্ব দিয়ে করতে হয়, তার তালিকা তো আমরা জানি। কিন্তু যেগুলো করলে পুরো দিনের কাজেই নেতিবাচক প্রভাব পড়বে, আজ সেগুলো জানবো। 

বিছানায়
অনেকেরই সকালের ঘুমটা সত্যি অনেক প্রিয়। আবার ঘুম ভাঙলেও বিছানায় থাকার অভ্যেস অনেকের। এটা কিন্তু আলসতা, ঘুম ভাঙার পর বিছানা ছাড়ুন। বাইরের আকাশ দেখুন, একটু হাঁটাহাঁটি, হালকা ব্যায়াম করুন। সকালের বাতাসে কোনো ধুলা ময়লা থাকেনা, সময়টা উপভোগ করুন।  

হাতের স্মার্টফোন

ফোন 
হাতের স্মার্টফোন, রাতে ঘুমানোর সময়ও পাশেই থাকে। অনেক গবেষণায়ই বলা হয়েছে, ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত দেড়ঘণ্টা আগে থেকে ফোনটি হাতের না রাখতে। আমরা ঘুম ভেঙেই প্রথমেই ফোনে মেইল, ম্যাসেঞ্জার ও অন্য সাইটগুলো চেক করছি। প্রযুক্তি এই ব্যবহার আমাদের স্বাভাবিক জীবনকে বাধাগ্রস্থ করছে। তাই সকালেই অনলাইন-ফোন থেকে দূরে থাকুন। 

কফি নয় 
সকালের কফি পানে ক্যাফেইনের প্রতি আমাদের আসক্তি তৈরি করে, এজন্য অন্তত সকাল দশটার আগে মোটেও কফি নয়।

সিদ্ধান্ত 
জরুরি কোনো কাজ আছে, ঘুম থেকে উঠেই নিজের সিদ্ধন্তটা জানিয়ে দিলেন বা নিয়ে নিলেন, এটা করা ঠিক নয়। সকালে দীর্ঘ সময় বিশ্রামের পর শুরুতেই অনেক চাপ না দিয়ে, মস্তিষ্কের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতায় আসতে কিছুটা সময় দিন। এরপর চিন্তা করে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলো নিন। 

সকালের নাস্তা

সকালে প্রোটিন নয় 
সকালের নাস্তায় কোনো প্রোটিন থাকেনা। বিশেষ করে যারা ওজন কমানোর চিন্তায় থাকেন, তাদের নাস্তায় কোনো প্রোটিন রাখতে চাননা। কিন্তু সারাদিনে দীর্ঘ সময় পেটে থাকে এমন পুষ্টিকর খাবার দিয়েই সকালের নাস্তাটা করতে হবে। ডিম, মাছ বা এক পিস মাংস যেকোনো একটি থাকতে পারে নাস্তায়।  

প্রতিটি কাজ শুরু করার জন্যই চাই পূর্ব প্রস্তুতি। তাই সারাদিন কর্মক্ষম থাকার জন্য সকালের সময়টা প্রস্তুতির জন্যই ছেড়ে দিন। এরপর কাজ শুরু করুন, স্বাস্থ্যও ভাল থাকবে, মনের ওপরও চাপ পড়বেনা, সঠিক সময়ে কাজও শেষ হবে। 

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০১৮ 
এসআইএস
 

শাহজালালে ৬ স্বর্ণেরবারসহ যাত্রী আটক
ছাগলনাইয়ায় মহিষের দখলে পশুরহাট
মৌলভীবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
সিলেটে চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা লক্ষাধিক পিস
শনিবার থেকে লঞ্চের স্পেশাল সার্ভিস
নাট্যকার সেলিম আল দীনের জন্ম
কোটার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেলের মত চেয়েছে সরকার
কেরালায় বন্যায় ৩২৪ জনের মৃত্যু, আশ্রয় শিবিরে সোয়া ২ লাখ
ডিমলায় জামায়াতের শীর্ষ ৪ নেতা আটক
স্বাচ্ছন্দ্যেই নৌপথে ঘরে ফিরছেন মানুষ