ব্যাকপেইনের প্রতিকার

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ব্যাকপেইন

আমরা যারা দীর্ঘ সময় বসে কাজ করি অথবা প্রচুর জার্নি করি সবারই হতে পারে ব্যাকপেইন। ব্যাকপেইন হলে প্রথমেই ব্যথানাশক ওষুধ না খেয়ে কিছু নিয়ম মেনে চলুন, কয়েকটি সহজ ব্যায়ামও করতে পারেন। 

সেঁক ও বরফ : ব্যাকপেইন সারাতে গরম পানির সেঁক ও বরফ দেওয়া যেতে পারে। 

ডাক্তারের পরামর্শে ব্যায়াম : ব্যাকপেইন নিরাময়ে চিকিৎসকের পরামর্শে ব্যায়াম করা যেতে পারে। ব্যথা ভালো হওয়ার জন্য অনেক সময় ব্যায়াম খুব কাজে দেয়। যেমন: 


পায়ের আঙুলের ওপর ভর দিয়ে দাঁড়ান। এভাবেই ২০ সেকেন্ড হেঁটে ১০ সেকেন্ড বিশ্রাম নিন। পাঁচ বার ব্যায়ামটা করুন। 

চিৎ হয়ে শুয়ে পড়ুন। এবার গোড়ালি শূন্যে তুলে তা ১০ সেকেন্ড ধরে ক্লকওয়াইজ ঘোরাতে থাকুন। এবার একই সময় ধরে গোড়ালিটা অ্যান্টি-ক্লকওয়াইজ ঘোরান। এভাবে দিনে দু’বার এই ব্যায়াম করুন।ব্যাকপেইন

কনুইয়ের ওপর ভর দিয়ে শরীরের ওপরের অংশ (যতটুকু পারেন) আস্তে আস্তে ওপরে তুলুন। দুই-তিন মিনিট এভাবেই থাকুন।

বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল চালানোর কারণে ব্যাকপেইন হতে পারে। এক্ষেত্রে বাইসাইকেল চালানো কিছুদিনের জন্য বন্ধ করতে হবে।

সব সময় সোজা হয়ে বসুন। কিছুক্ষণ পরপর ডেস্ক ছেড়ে উঠুন, একটু হাঁটুন। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিন। 

কয়েকদিন অপেক্ষার পরও যদি ব্যথা না কমে সময় নষ্ট না করে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

আবাসিকে গ্যাস সংকট থাকছে না চট্টগ্রামে
এনআরসি ইস্যুতে দ্বিধা বিভক্ত সরকার, অভিযোগ বীরজিতের
প্রধানমন্ত্রীকে এসএমএস করে কোরবানির গরু পেলেন তারা
বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ২ নম্বর ইউনিট চালু
পাসপোর্ট করতে এসে রোহিঙ্গা তরুণী আটক
ব্যাংকের সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতের নির্দেশ
যাত্রীর চাপ সামলাতে ফিটনেসবিহীন বাস-ট্রাক
পঁচাত্তরের খুনিদের ক্ষমতায় দেখতে চায় না জনগণ
সদরঘাটে ঘরমুখো যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়
ট্রেনের ছাদ-ইঞ্জিন-বগি, বাদ নেই কিছুই!