শীতে চুলের কমপ্লিট কেয়ার

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চুল সুন্দর রাখতে

শীতে আমাদের চুল সুন্দর রাখতে খুব কষ্ট করতে হবে না, শুধু প্রয়োজন ইচ্ছা আর একটু যত্ন।

প্রথমেই 

শ্যাম্পু: নিয়মিত ভালো ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু ব্যবহার করে চুল পরিষ্কার রাখুন।  

পেঁয়াজের রস: ১ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস, লেবুর রস এবং মসুরের ডাল বাটা দিয়ে পেস্ট তৈরি করে চুলে মেখে আধা ঘণ্টা রাখুন। এবার খুশকি মুক্ত শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

ভিনেগার: কটন প্যাডে ভিনেগার নিন। তারপর চুলে বিলি কেটে কেটে পুরো মাথায় লাগান। সপ্তাহে ২ দিন গোসলের ১ ঘণ্টা আগে লাগিয়ে রাখুন।

অলিভ অয়েল: অলিভ অয়েল স্ক্যাল্প ও চুলের জন্য খুব ভালো সল্যিউশন। অলিভ অয়েল হালকা গরম করে স্ক্যাল্প ও চুলে লাগান। ১৫ মিনিট রাখুন। এরপর গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে নিংড়ে মাথায় পেচিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু করুন। এটি চুলের কন্ডিশনিং এর কাজও করবে। 

ডিম: ডিম প্রোটিনের ভালো উৎস। ডিম চুলকে বড় ও মজবুত হতে সাহায্য করে।  সপ্তাহে একদিন চুলে প্রোটিন ট্রিটমেন্ট করতে পারেন। ডিমের সাথে ২ টেবিল চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে চুলে লাগান, কিছুক্ষণ রাখুন। গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে মাথায় ২০ মিনিট জড়িয়ে রাখুন। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে শ্যাম্পু করে ফেলুন। 

দুধ ও মধু: চুলের জেল্লা বাড়াতে দুধের জুড়ি নেই। কাঁচা দুধে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। ১৫ মিনিট পর হালকা গরম পানি দিয়ে শ্যাম্পু করে নিন।  

নারকেলের দুধ: নারকেলের দুধ চুলকে রিপেয়ার করে। এছাড়াও এটি ভালো কন্ডিশনার। 

চুলে এসব ব্যবহারের পাশাপাশি লক্ষ্য রাখুন প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় কী রাখবেন-

চুল সুন্দর রাখতে
ছোলা
ছোলা খুশকি দূর করে। কীভাবে? ছোলা ভিটামিন বি-৬ (পাইরিডক্সিন) ও জিঙ্কে পরিপূর্ণ যা খুশকি হতে দেয় না। 

আদা
খাবার ভালোভাবে হজম না হলেও খুশকি হতে পারে। আদা হজমে সহায়ক। অতি পরিচিত প্রাচীন এ উপকরণটি হজম প্রক্রিয়ার উন্নতি করে খুশকি নির্মূল করে। 

রসুন
রসুনে রয়েছে উচ্চমানের এলিসিন। এলিসিন হচ্ছে প্রাকৃতিক এন্টি-ফাঙ্গাল উপাদান। প্রাকৃতিক এন্টি-ফাঙ্গাল এ উপাদানটি খুশকি দূর করে। 

আপেল
কথায় বলে, দিনে একটি আপেল খেলে ডাক্তারবাড়ি যেতে হয় না। শুধু ডাক্তারবাড়ি থেকেই দূরে নয়, আপেল খেয়ে খুশকিও তাড়াতে পারেন। ডেজার্ট বা ফ্রুট সালাদে আপেল ব্যবহার করুন। 

কলা
কলাতে রয়েছে ভিটামিন বি-৬, এ, সি, ই ও খনিজ যেমন- জিঙ্ক, পটাশিয়াম ও লোহা। এতে আরও রয়েছে এমিনো এসিড ও এন্টি-অক্সিডেন্ট। ‍

নিয়মিত যত্ন নিলে খুশকিমুক্ত সুন্দর চুল নিয়ে আনন্দে কাটানো যাবে শীতের সময়। আর নিয়মিত যত্নে নেওয়ার পরেও যদি খুশকির সমস্যার কোনো উন্নতি না হয়, তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 

বিএনপির পাঁচ প্রার্থীর মনোনয়ন জমা, সিদ্ধান্ত রাতে
স্নাতক পাস কোর্সের ভর্তি শুরু ১৭ জানুয়ারি
উড়ন্ত সূচনা করে ফিরলেন বিজয়
নিজস্ব টাকায় হবে ঢাকা-সিলেট ফোরলেন
ট্রাকচাপায় ১৩ শ্রমিক নিহতের মামলায় চালকের আত্মসমর্পণ
বাগদাদে জোড়া আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৩৮
কলারোয়ায় ৫ সোনার বারসহ চোরাকারবারী আটক
রাইড শেয়ারিং পরিচালনায় শর্ত ভাঙলে কার্যক্রম বন্ধ
তেজগাঁওয়ে মোটরসাইকেল চোর চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার
বেতন-ভাতার দাবিতে কুড়িগ্রাম পৌর কর্মচারীদের কর্মবিরতি




Alexa