হজযাত্রী রিপ্লেসমেন্টে কমবে বিমানের অবিক্রিত টিকিট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হজ ক্যাম্পে কথা বলছেন হজ এজেন্সি অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসাইন তসলিম-ছবি-বাংলানিউজ

ঢাকা: চলতি বছর অতিরিক্ত আরও ৪ শতাংশ হজযাত্রীর রিপ্লেসমেন্টের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। নতুন করে সরকারের এ সিদ্ধান্তে যেন আশার আলো দেখছেন হজ সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, এর ফলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এখনও অবিক্রিত ৮ হাজার টিকিট বিক্রির সম্ভাবনা বেড়ে গেছে। একইসঙ্গে গুরুতর অসুস্থ ও মৃত্যুবরণকারীদের স্থলে রিপ্লেসমেন্ট হবে।

সরকারের পক্ষ থেকে ৪ শতাংশ রিপ্লেসমেন্টের সুবিধা থাকলেও তা গত মাসেই পূরণ হয়ে যায়। এর ফলে এজেন্সিগুলো এই সুবিধা বাড়ানোর দাবি জানিয়ে আসছিলো। হজ এজেন্সিগুলোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যায় বেইলি রোডের নিজ বাসায় আনুষ্ঠানিকভাবে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।

রোববার (২২ জুলাই) হজক্যাম্পে হজ এজেন্সি অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, নতুন করে আরও ৪ শতাংশ রিপ্লেসমেন্টের সুবিধা দেওয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। আমার বিশ্বাস এখন সব এজেন্সিগুলো তাদের এ সুবিধা পাবে। তারা সরকারের এ সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ছিলো, এখন তাদের বিমানের টিকিট নিয়েও কোনো ধরনের ঝামেলা হবে না।

এসময় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোসাদ্দেক আহমেদের বরাত দিয়ে একটি সংস্থার এক কর্মকর্তা বলেন, চলতি বছর অতিরিক্ত আরও ৪ শতাংশ হজযাত্রীর রিপ্লেসমেন্টের সুবিধা দেওয়ার ফলে টিকিট বিক্রি বেড়ে যাবে। অবিক্রিত যে ৮ হাজার টিকিট আছে সেগুলো নিয়ে আর ভাবতে হবে না। আশা করছি, এজেন্সিগুলো এখন টিকিট কনফার্ম করবে।

হজ ক্যাম্পে যাত্রীরা-ছবি-বাংলানিউজসংবাদ সম্মেলনে ধর্মমন্ত্রী জানিয়েছেন, রিপ্লেসমেন্টের এ ব্যবস্থা করা হবে শর্ত সাপেক্ষে। এজন্য এজেন্সিগুলোর নিজস্ব প্যাডে আশকোনা হজ অফিস বরাবর আগামী ২৪ জুলাইয়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে। একইসঙ্গে অনলাইন মাধ্যমেও তাদের আবেদনের প্রয়োজন হবে। আবেদনের সঙ্গে যে হজযাত্রী গুরুতর অসুস্থতা অথবা মৃত্যুজনিত কারণে হজ পালন করতে পারবে না চিকিৎসকের কাছ থেকে তার সনদ জমা দিতে হবে। তাদের আবেদন সত্য এই মর্মে ৩শ’ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে অঙ্গীকারনামা আবেদনের সঙ্গে দাখিল করতে হবে। 

মন্ত্রী আরও জানান, শুধু হজযাত্রীরা এই ৪ শতাংশের মধ্যে পড়বে। তাদের কোনো গাইড এতে গণ্য হবে না। তাছাড়া তাদের দাখিল করা সব তথ্য যাচাই করেই অনুমতি দেওয়া হবে। কোনো মিথ্যা তথ্য দিলে ওই এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন হজ পালন করতে সৌদি আরব যাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ৬ হাজার ৭৯৮ জন আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ১ লাখ ২০ হাজার। এবার বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫২৮টি এজেন্সি হজের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। 

যাত্রীদের বহনের জন্য আগেই ঠিক করে রাখা হয়েছে বিমান বাংলাদেশ ও সৌদি এয়ারলাইন্স। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ১৮৭টি ফ্লাইট ৬৪ হাজার ৯৬৭ জন এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের ১৮৮টি ফ্লাইট ৬১ হাজার ৮৩১ জন যাত্রী পরিবহন করবে। হজের শেষ ফ্লাইট ঢাকা থেকে ছেড়ে যাবে ১৫ আগস্ট। আর হজ পালন শেষে ২৭ আগস্ট প্রথম ফিরতি ফ্লাইট জেদ্দা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১১ ঘণ্টা, জুলাই ২২, ২০১৮
ইএআর/আরআর

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: হজ
অস্ট্রিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বিয়েতে নাচলেন পুতিন
সদরঘাটে ঘরমুখো মানুষের চাপ বাড়ছে
ফেনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ মাদকবিক্রেতা নিহত
ছাগলনাইয়ায় ট্রাক-মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে নিহত ৬
যশোরে ভিজিএফ’র চাল পাচার রুখে দিলো জনতা
ব্যবসা গুটিয়ে নিচ্ছেন সিলেটের চামড়া ব্যবসায়ীরা!
কেরালার বন্যায় রেড অ্যালার্ট প্রত্যাহার, নিহত ২৪৫
পরোক্ষ ধূমপানে বাড়ে শিশুদের ফুসফুসজনিত রোগের ঝুঁকি 
মিশরে ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণে আইন অনুমোদন
তালা উপজেলা কৃষক দলের সভাপতি গ্রেফতার