মাওলানা সাদের আগমন ঠেকাতে বিমানবন্দর চত্বরে বিক্ষোভ

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মাওলানা মোহাম্মদ সাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের একাংশ। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: গাজীপুরের টঙ্গীতে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের জিম্মাদার মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভির আগমনের বিরুদ্ধে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় বিক্ষোভ চলছে। দুপুরে দিল্লি থেকে একটি ফ্লাইটে ঢাকায় আসার কথা রয়েছে মাওলানা সাদ ও তার অনুসারীদের।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিমানবন্দরের অদূরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বায়তুস সালাম জামে মসজিদ সংলগ্ন চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু হয়। বেলা ১১টার পর ওই চত্বরে বিক্ষোভকারীদের ঢল নামে। এতে বিমানবন্দর থেকে উত্তরা পর্যন্ত সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাবলিগ জামাতের এক শুরা সদস্য বাংলানিউজকে জানান, মাওলানা সাদের বিরুদ্ধে আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ঢাকা মহানগর হেফাজতের আমির আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া বাংলানিউজকে জানান, তাবলিগ জামাতের একটি অংশ বিমানবন্দর গোলচত্বরে মাওলানা সাদের আগমনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে। এরা হেফাজতের লোকজনও হতে পারে। মাওলানা সাদকে ঢাকায় নামতে বাধা দেওয়ার জন্য এরা বিক্ষোভ করছে।

ঘটনাস্থলে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান ওসি।

মাওলানা সাদের আগমনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের একাংশ। ছবি: জিএম মুজিবুর
বিক্ষোভ সমাবেশের আগে বায়তুস সালাম জামে মসজিদে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের (বেফাক) কার্যালয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন মাওলানা সাদের আগমনের বিরোধী আলেম-উলামারা। 

এরপরই শুরু হয় বিক্ষোভ। খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে বিমানবন্দরের সামনের সড়কে জড়ো হতে থাকে মাওলানা কাসেমীর সংগঠন এবং বেফাকের লোকজন। নিকটস্থ দক্ষিণখান, উত্তরখান, গাওয়াইর, উত্তরা, টঙ্গী, গাজীপুরসহ আশপাশ থেকে বিক্ষোভকারীদের ঢল নামে বিমানবন্দর অভিমুখে। সকালে রাজধানীর কাজলা এলাকায়ও বিক্ষোভ হয় মাওলানা সাদের বিরুদ্ধে।

তাবলিগ জামাতের অন্যতম শীর্ষ মুরুব্বি, দিল্লি নিজামুদ্দিনের জিম্মাদার মাওলানা সাদের কিছু বক্তব্য ও একক নেতৃত্বের প্রশ্নে বেশ কয়েক বছর যাবৎ আলেম-উলামা ও তাবলিগের মুরুব্বিদের মাঝে অসন্তোষ বিরাজ করছে।
 
এর প্রেক্ষিতে ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মাওলানা সাদের বিপক্ষে অবস্থান নেয়, আর নিজামুদ্দিন ছেড়ে চলে যান মাওলানা ইবরাহিম দেওলাসহ বেশ কয়েকজন মুরুব্বি। বিশ্বব্যাপী তাবলিগের বিভিন্ন মারকাজগুলোও দ্বিধা-বিভক্ত হয়ে পড়ে।

এই দ্বিধা-বিভক্তির মধ্যে সম্প্রতি কানাডা, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া তাবলিগের শুরা থেকে বাংলাদেশ শুরা ও সরকারকে চিঠি দিয়ে মাওলানা সাদকেই ইজতেমার নেতৃত্বে রাখার দাবি জানায়। কিন্তু বিরোধীরা কোনোভাবেই মাওলানা সাদকে মেনে না নেওয়ার কথা জানিয়ে দেয়।

এরমধ্যে মঙ্গলবার জানানো হয়, মাওলানা সাদ এবং নিজামুদ্দিনের একটি জামাত বাংলাদেশের উদ্দেশে বুধবার দুপুর ১টা ৩০ মিনিটের ফ্লাইটে যাত্রা করবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০১৮/আপডেট ১৩০৫ ঘণ্টা
এজেডএস/এমএ/পিএম/এইচএ/

** বুধবারই ইজতেমায় আসছেন মাওলানা সাদ
** নেতৃত্বে জটিলতা :: ইজতেমা মালয়েশিয়ায় সরিয়ে নেয়ার প্রস্তাব!

হবিগঞ্জে লক্ষ্মীপেঁচা অবমুক্ত
করিমগঞ্জে ২ সড়কের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন
সড়ক দুর্ঘটনার কবলে অর্থমন্ত্রীর গাড়িবহর, আহত ১৫
শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে কাজ করছে সরকার 
গাছের সঙ্গে বাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১০
ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা
বিনিয়োগ বিষয়ে শেখ সালাহ্‌উদ্দিন অ্যাসোসিয়েটসের সেমিনার
প্রধানমন্ত্রীকে অন্তত ১৭ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে
চ্যালেঞ্জিং স্কোরের পথে বাংলাদেশ
সাতক্ষীরায় ৬ শিবিরকর্মী আটক




Alexa