মুলকির পদত্যাগের পরও সরকার ঢেলে সাজানোর দাবিতে আন্দোলন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সংগৃহীত ছবি

জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী হানি আল মুলকির পদত্যাগের পরও আন্দোলন চলছে। আন্দোলনকারীদের দাবি, সরকারের প্রক্রিয়া নতুন করে ঢেলে সাজাতে হবে। 

সোমবার (৪ জুন) জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন। জর্ডানের রাজা দ্বিতীয় আব্দুল্লাহ’র কাছে তিনি পদত্যাগপত্র হস্তান্তর করেন। 

গত সপ্তাহে কর বৃদ্ধি ও সরকারি ব্যয় হ্রাসের সিদ্ধান্ত সম্বলিত বিল পাস করার পর দেশটিতে গণবিক্ষোভ শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের পর আবারও আন্দোলনকারীরা পথে নেমেছেন। আন্দোলনের আয়োজক ও অংশগ্রহণকারীরা বলছেন, সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে তারা ‘নতুন দৃষ্টিভঙ্গি’ চান।

এছাড়া গত বুধবার থেকে ইউনিয়ন একটি সাধারণ ধর্মঘটের আহ্বান করেছে। তারাও সরকারের নীতিতে ‘নতুন দৃষ্টিভঙ্গি’ চায়।

জারকা প্রদেশ থেকে আসা আন্দোলনকারী ওদাই নোফাল বলেন, আমরা সরকারকে একটা নতুন বার্তা দিতে যাচ্ছি। এই ক্ষমতার সঙ্গে জনগণ জড়িত। নাগরিকদের সঙ্গে যেকোন আচরণের ক্ষেত্রে সরকারের সাবধান থাকা প্রয়োজন।

নোফাল বলেন, দেশের অর্থনৈতিক সংকটের সমাধান করতে সরকারের উচিৎ হবে প্রতিষ্ঠিত কর্পোরেশনগুলোর উপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা, জনগণের উপর নয়।

২০১৬ সালে ক্ষমতায় আসা মুলকির পদত্যাগের দাবির সঙ্গে আন্দোলনকারীরা স্বচ্ছতা, সুস্পষ্ট লক্ষ্য নির্ধারণ এবং সব মিলিয়ে সরকারের নীতির পরিবর্তনের দাবিও তুলেছিলেন। 

আন্দোলন সংগঠককারীদের মধ্যে অন্যতম একজন ২৬ বছর বয়সী তরুণ আইনজীবী হুসেইন আল সামাদী। তিনি বলেন, আমরা এই সরকারের অবসান চাই এবং অর্থনৈতিক ও সামাজিক ইস্যুতে সরকারের নতুন দৃষ্টিভঙ্গি চাই। 

এদিকে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম বলছে, জর্ডানের রাজা শিক্ষামন্ত্রী ওমর আল রাজ্জাককে নতুন সরকার গঠনের নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে জর্ডানের সরকারি সংবাদ সংস্থা পেত্রা এ ব্যাপারে কিছু বলেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৭ ঘণ্টা, জুন ০৫, ২০১৮
আরআর

পুসকাসকে ছাড়িয়ে রোনালদো ছুটছেন দাইয়ির দিকে
ব্রাজিল অনুশীলনে ফিরলেন নেইমার
সোনাগাজীতে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম
অভিবাসীদের বিচ্ছিন্ন করা থেকে সরে আসলেন ট্রাম্প
রাজার বেশে রোনালদো-মেসি-সালাহরা
আর্জেন্টিনার একাদশে নেই ডি মারিয়া-রোহো!
মেসিকে আগলে রাখলেন কোচ সাম্পাওলি
আশুলিয়ায় ইউপি সদস্যের উপর হামলার অভিযোগ
বরগুনা ডিসি অফিসে অগ্নিকাণ্ডে সার্ভার স্টেশন পুড়ে ছাই
অষ্টগ্রামে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় আহত শিশুর মৃত্যু