রোহিঙ্গা গণহত্যা, ৭ মিয়ানমার সেনার ১০ বছর করে কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী ছবি

ঢাকা: রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সাত সদস্যকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১১ এপ্রিল) মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি বিবৃতির বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়, ‘হত্যায় অংশগ্রহণ ও সহায়তা’র অভিযোগে ওই সাত সেনাসদস্যকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি সামরিক আদালত। 

গত বছর দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে রাখাইন রাজ্যের মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগ ওঠে আন্তর্জাতিক মহলে। চলতি বছরের শুরুতে সেনাবাহিনী এ অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে। এ গণহত্যায় অংশগ্রহণ ও সহযোগিতা করার অভিযোগে সামরিক আদালতটি এ রায় ঘোষণা করেন।

সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়, কারাদণ্ডপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের চারজন অফিসার এবং বাকি তিনজন নন-অফিসার। রাখাইন রাজ্যের ইন-দিন গ্রামে গণহত্যার পেছনে তারা সম্পৃক্ত ছিলেন। তাদের সবাইকে সেনাবাহিনী থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এ গণহত্যার বিষয়টি প্রথ খোলাসা করেন লন্ডনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের দুই জন সাংবাদিক। যদিও তাদেরকে গ্রেফতার করে এখনও বন্দি করে রেখেছে মিয়ানমার সরকার। 

বুধবার (১১ এপ্রিল) তাদের দুজনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তুলে নেওয়ার আবেদন নাকোচ করে দেন মিয়ানমারের একটি আদালত।

এদিকে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর চালানো গণহত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতন থেকে বাঁচতে প্রায় সাড়ে ছয় লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে প্রতিবেশি রাষ্ট্র বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

প্রথম থেকেই মিয়ানমার সেনাবাহিনী এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলছিল, তারা রোহিঙ্গা জঙ্গিদের ওপর অভিযান চালাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৮
এনএইচটি

সিলেটের কানাইঘাটে ডাকাতের গুলিতে গৃহকর্তা নিহত
যে বাড়িতে প্রথম ওড়ে বাংলাদেশের পতাকা
সেই মা’কে সান্ত্বনা দিলেন সিভিল সার্জন
কল্যাণপুর জঙ্গি আস্তানা মামলার প্রতিবেদন ৩১ মে
খালেদার নাইকো মামলার চার্জ শুনানি ১৩ মে
বুড়িচংয়ে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত
‘সাম‌নের অ‌ধি‌বেশনেই ডি‌জিটাল নিরাপত্তা আইন পাশ’
প্রবাসীদের ভোটাধিকার বিষয়ে ইসির সেমিনার শুরু
ঢাকায় বসছে চার দিনব্যাপী ‘থাইল্যান্ড সপ্তাহ’
সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠকে আইনমন্ত্রী

Alexa