অবশেষে ট্রুডোকে নিয়ে মোদীর টুইট!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

২০১৫ সালে মোদীর কানাডা সফরকালে তোলা ছবি। ছবিতে মোদী, জাস্টিন ট্রুডো ও ট্রুডোতনয়া ইল্লা গ্রেইস। ছবি-সংগৃহীত

সপ্তাহব্যাপী ভারত সফরে এসে কয়েকদিন ‘অনাদরের মেহমান’ হয়ে থাকতে হয়েছে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মনোহর মোদী তাকে সঙ্গ তো দেনইনি,এমনকি টুইটপ্রেমী হওয়া সত্ত্বেও একটিবার টুইটও করেননি। অবশেষে শুক্রবারের দ্বিপক্ষীয় বৈঠককে সামনে রেখে টুইট দিলেন মোদী।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়,  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সফরকারী প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর ব্যাপারে টানা ৫ দিনের নীরবতা ভাঙলেন। তাকে নিয়ে টুইট বার্তা দিলেন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়।

টুইটে মোদী বলেন, '‘আশা করি জাস্টিন ট্রুডো ও তার পরিবারের এখানে খুবই ভালো সময় কেটেছে। আমি তার সন্তান জ্যাভিয়ার, ইল্লা গ্রেইস এবং হ্যাড্রিয়েনের সঙ্গে দেখা করার জন্য মুখিয়ে আছি। এখানে একটি ছবি দিলাম যা ২০১৫ সালে আমার কানাডা সফরের সময় তোলা। ওই সময়টায় প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো ও ইল্লা গ্রেইসের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়েছিল।’'

শুক্রবারের দ্বিপক্ষীয় বৈঠককালে মোদী ও ট্রুডো দুদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, প্রতিরক্ষার নানা দিক, বেসামরিক পরমাণু সহায়তা, মহাকাশ সহযোগিতা, জলবায়ু পরিবর্তনের দিক মাথায় রেখে উপযুক্ত পরিবেশবান্ধব জ্বালানি উদ্ভাবন ও ব্যবহার এবং শিক্ষার মতো বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন।

ট্রুডোর প্রতি মোদীর এহেন বিরূপ আচরণের মূল কারণ স্বাধীনতাকামী শিখদের খালিস্তান আন্দোলনের প্রতি ট্রুডো ও তার সরকারের সহানুভূতি ও সমর্থন। ভারত বিষয়টিকে অমার্জনীয় অপরাধ হিসেবে দেখছে। এই বার্তাই কানাডাকে পৌঁছে দিয়েছে ভারত, ট্রুডোকে ‘অনাদরের মেহমান’ বানিয়ে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪০ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮

জেএম

সাভারে কোটি টাকার হিরোইনসহ দুই মাদকবিক্রেতা আটক
 ৬ ওসিকে বদলি, এসএমপিতে আতঙ্ক
ড্রামের ভেতর থেকে যুবকের খণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার
বাংলাদেশি সহপাঠীর চোখে ভুটানের ‘হবু প্রধানমন্ত্রী’
সরকার নিজস্ব ভঙ্গিতে একটা অভিনব নির্বাচন করতে চাচ্ছে
ফ্রিজ বিকল, মরদেহ সংরক্ষণ বন্ধ শেবাচিমে
লেবাননকে পাত্তাই দিল না বাংলাদেশের মেয়েরা
শহিদুল আলমের জামিন শুনানি আগামী সপ্তাহে হতে পারে
লালমনিরহাটে বাসের ধাক্কায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত
রাজশাহীতে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ