এক নম্বরে অন্য অপারেটরের সেবা পেতে বদলাতে হবে পুরনো সিম

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডি কর্মকর্তারা কথা বলছেন সাংবাদিকদের সঙ্গে/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে এমএনপি বা এক নম্বরে অন্য অপারেটরের সেবা দিতে প্রস্তুত রয়েছে লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠান ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডি। তবে গ্রাহককে এই সেবা পেতে হলে নির্দিষ্ট ফি প্রদান ও পুরনো সিম বদল করে নতুন সিম নিতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) মহাখালীতে নিজ কার্যালয়ে টেলিকম বিটের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব তথ্য জানান লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাবরুর হোসেন।
 
লাইসেন্স গ্রহণের পর নির্ধারিত সময় ৩০ মে'র মধ্যে এমএনপি চালুর কথা থাকলেও মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো প্রস্তুত না হওয়ায় এই সেবা গ্রাহকের জন্য উন্মুক্ত করতে পারেনি সেবাদাতা অপারেটরটি।
 
তবে পরবর্তীতে সরকারের উচ্চপর্যায়ের সিদ্ধান্তে দুই মাস পিছিয়ে ৩১ জুলাই এমএনপি সেবা চালুর সিদ্ধান্ত হয়।
 
ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডির এমডি জানান, নতুন সময়সীমাকে টার্গেট ধরে মূল ডাটা সেন্টার এবং দুর্যোগকালীন ডাটা সেন্টারের জন্য প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার আমদানি ও সমন্বয় করে প্রস্তুত করা হয়েছে। পরবর্তীতে অন্য সব অপারেটরের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন ও চালু করা হয়েছে এই প্ল্যাটফর্ম। গত ৭ মে থেকে এমএনপি সংক্রান্ত ক্লিয়ারিং হাউজ ও সেন্ট্রাল রেফারেন্স ডাটাবেজ প্ল্যাটফর্মটি কার্যরত আছে। ওই সময় থেকেই মোবাইল অপারেটররা প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন ও যোগাযোগ এবং প্রয়োজনীয় কার্যক্রম প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম চালাচ্ছেন। 
 
তিনি জানান, অপারেটরদের সঙ্গে টেলিটক ছাড়া অন্য অপারেটর পোর্টিং সংক্রান্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে। তবে টেলিটক স্থাপন করেছে কেবল ভিপিএন কানেকশন। এছাড়াও অধিকাংশ আইসিএক্সের সঙ্গে মোবাইল অপারেটররা আন্তঃঅপারেটর কল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে। 
 
মাবরুর হোসেন বলেন, ছোটখাট কিছু সমস্যা আছে, তবে আমরা গ্রাহকদের এমএনপি সেবা দেওয়ার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত আছি। 
 
ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ জুলফিকার জানান, এমএনপি সেবা চালু হলে গ্রাহকেরা নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অন্য যে কোনো অপারেটরের সেবা নিতে পারবেন। তবে সেজন্য গ্রাহককে ৩০ টাকা চার্জ দিতে হবে। ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেবা চালু হলে পরবর্তী ৯০ দিন তিনি অপারেটর পরিবর্তন করতে পারবেন না। 
 
এমএনপি সেবা নিতে হলে গ্রাহককে সংশ্লিষ্ট মোবাইল ফোনের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যেতে হবে। সেখানে চার্জ পরিশোধের পর পুরনো সিম বদল করে নতুন সিম নিতে হবে।
 
গ্রাহককে নতুন সিমের জন্য চার্জ দিতে হবে কিনা- প্রশ্নে মাবরুর হোসেন বলেন, এ বিষয়টি মোবাইল অপারেটররা নির্ধারণ করবে। তারা চাইলে বিনামূল্যে সিম বদল করে দিতে পারে।
 
এমএনপি সেবা নিতে গিয়ে গ্রাহকের মোবাইলে ব্যালান্স থাকলে তা নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে। তবে গ্রাহকের বকেয়া থাকলে তা পরিশোধ করতে হবে।
 
অপারেটর পরিবর্তনে গ্রাহকদের সহযোগিতা দিতে ইতোমধ্যে টিকিটিং পদ্ধতির হেল্প ডেস্ক চালু করেছে ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডি। পাশাপাশি গ্রাহকের চাহিদার কথা মাথায় রেখে অপারেটরের ওয়েবসাইটে (www.infotelebd.com) প্রয়োজনীয় তথ্য ও এনিমেশন যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া ই-মেইলের মাধ্যমেও গ্রাহকেরা যোগাযোগ করতে পারবেন। ভবিষতে হটলাইন নম্বর চালুর পরিকল্পনা জানিয়েছেন মাবরুর হোসেন।
 
এমএনপি সেবা চালু হলে গ্রাহককে উত্তম সেবা দিতে অপারেটররা টিকে থাকতে প্রতিযোগিতামূলকভাবে সেবার মান উন্নত করবে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই সেবা চালু থাকলেও পিছিয়ে ছিল বাংলাদেশ, তবে সেবাটি উন্মুক্ত হওয়ার পর গ্রাহকের নেটওয়ার্ক পছন্দের স্বাধীনতা তৈরি হবে।
 
গত বছরের ৩০ নভেম্বর এমএনপি সেবার জন্য ইনফোজিলিয়নের কাছে লাইসেন্স হস্তান্তর করে বিটিআরসি। এর আগে বিটিআরসি বাংলাদেশ ও স্লোভেনিয়ার যৌথ কনসোর্টিয়াম ইনফোজিলিয়ান বিডি-টেলিটেক’কে নোটিফিকেশনপত্র বা অনুমতিপত্র দেয় ৭ নভেম্বর।
 
লাইসেন্সপ্রাপ্তির পরবর্তী ছয় মাসের মধ্যে দেশের মোবাইল গ্রাহকদের মধ্যে কমপক্ষে ১ শতাংশ, এক বছরের মধ্যে ৫ শতাংশ এবং পাঁচ বছরের মধ্যে ১০ শতাংশ রোল আউট বাস্তবায়ন করা কথা ছিল।
 
মতবিনিময়কালে টিআরএনবি’র সভাপতি মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম (সজল) ও সাধারণ সম্পাদক সমীর কুমার দে ছাড়াও সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭১৩ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০১৮
এমআইএইচ/এএ

মেহেরপুরে পুলিশের অভিযানে আটক ১৮ 
গোবিন্দগঞ্জে পিস্তলসহ আটক ১
সিলেটে ‘অবৈধ’ হাট বসানোর তোড়জোড়
প্যারিসে জাতীয় শোক দিবস পালিত   
কিশোরগঞ্জে অপহরণ চক্রের সদস্য আটক, ভিকটিম উদ্ধার
বগুড়ায় অস্ত্রসহ ২ সন্ত্রাসী আটক
নারায়ণগঞ্জে বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় আহত ৮ 
খুলনায় দুর্বৃত্তদের হামলা যুবক আহত 
সাগরে নিম্নচাপ, উপকূলের নিম্নাঞ্চলে জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা
মহেশখালীতে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা