‘রেডি ফর টুমরো’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ঢাকা: মেধা-যোগ্যতার বলে তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে আমাদের তরুণেরা দেশকে বিশ্ববাসীর কাছে পৌঁছে দিচ্ছে। তারা দেশের মর্যাদা বাড়িয়ে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

‘রেডি ফর টুমরো’ বলে আগামীর জন্য তৈরি হতে নতুন প্রজন্মের তরুণদের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।
বুধবার (০৬ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি।

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড দেশের সবচেয়ে বড় বার্ষিক তথ্যপ্রযুক্তি সম্মেলন। চারদিনের এ সম্মেলন চলবে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

তরুণ প্রজন্মকে ভবিষ্যতের জন্য যোগ্য হিসেবে গড়ে তোলার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর অনেক সময় নষ্ট হয়েছে। আর সময় নষ্ট হোক চাই না। সুন্দর আগামী দেখতে চাই, আমরা ভবিষ্যতের বাংলাদেশকে দেখতে চাই। এজন্য আমাদের তৈরি থাকতে হবে, নিজেদের তৈরি করতে হবে। রেডি ফর টু-মোরো।

তথ্য প্রযুক্তি খাতে গবেষণা ও শিক্ষা একান্ত প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রতিটি জেলায় হাইটেক পার্ক স্থাপন করার পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, তথ্য প্রযুক্তিতে তরুণদের আগ্রহী করে তুলতে ৫ ভাগ প্রণোদনা ও ট্রেনিং দেওয়া হচ্ছে। ২৮টি হাইটেক পার্কের মাধ্যমে নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে। এরই মধ্যে কারওয়ান বাজার ও যশোরে হাইটেক পার্কে কাজ চলছে। এছাড়া ১২টি বেসরকারি হাইটেক পার্ক তৈরিরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ১০০টি ইকোনমিক জোন তৈরি করা হবে এবং সেখানে দেশি-বিদেশি বিনোয়োগ হবে।

দেশের ফ্রিল্যান্সিং খাতের সম্ভাবনা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের মধ্যে ফিল্যান্সিং খাতে বাংলাদেশে সেরা ১০ এর মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে। আর এ খাতে আয়ের মধ্যে বাংলাদেশ এখন ২য়। আশাকরছি আমরা এক নম্বরে উঠে আসবো। ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ২০ লাখ তরুণ ফ্রিল্যান্সিংয়ে যুক্ত হবে।

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের পরপরই মঞ্চে আসে রোবট সোফিয়া। হলিউড অভিনেত্রী আন্দ্রে হেপবার্নের চেহারার আদলে তৈরি এই যন্ত্রমানবীর পর ছিলো হলুদ-সাদা জামদানির টপ আর স্কার্ট। প্রধানমন্ত্রীও পরেন হলুদ শাড়ি।

বিশ্বের প্রথম নাগরিকত্ব পাওয়া এই রোবট নারী সোফিয়া কথা বলেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে। জানিয়েছে বাংলাদেশ ও প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে তার যন্ত্রমস্তিস্কের তথ্যভাণ্ডারও। 

উদ্বোধন শেষে তথ্যপ্রযুক্তির এ প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেন তথ্য প্রযুক্তির বিভিন্ন উদ্ভাবন। 

এরই একটা পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি গেমস এর স্টলে যান। সেখানে তিনি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ক্রিকেট  (Virtual Reality Cricket) খেলেন। ক্রিকেট ব্যাট হাতে নিয়ে কয়েকটি বল মোকাবেলা করতে দেখা যায় তাকে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।
 
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি বিভাগ সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ইমরান আহমেদ, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস ( বেসিস ) সভাপতি মোস্তাফা জব্বার। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী।

বাংলাদেশ সময়: ১২১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৭
এমইউএম/এএটি/এএসআর/এসএইচ

‘আ’লীগ ডিএনসিসিতে হেরেছে, আগামী নির্বাচনেও হারবে’
বাদলের কেঁচো সার
বনশ্রী সড়কে ঢুকতেই ধুলার রাজ্য
এই শহর সবার জন্য নয়!
দিনাজপুরে পিস্তল-ফেনসিডিলসহ আটক ৪
ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যে ঠাঁই হবে জব্বারের বলিখেলার?
শরীয়তপুরে পকেটমার আটক
হাসপাতালে নয়, ঘরেই বিশ্রাম নিচ্ছেন পেলে
নেইমার পরিস্থিতি এড়াতে বার্সায় আকাশছোঁয়া রিলিজ ক্লজ
পাবনায় ইয়াবাসহ ২ মাদক বিক্রেতা আটক




Alexa