তারেক মাসুদের ক্ষতিপূরণ: অসমাপ্ত রায় ঘোষণা বৃহস্পতিবার

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হাইকোর্টের ফাইল ফটো

ঢাকা: সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা ক্ষতিপূরণ মামলার রায় ঘোষণা বুধবার (২৯ নভেম্বর) প্রথমদিনের মতো শেষ হয়েছে। অসমাপ্ত রায় ঘোষণার জন্যে বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট।

বুধবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিট থেকে শুরু করে মধ্যাহ্ন বিরতি পর বিকেল পর্যন্ত রায় ঘোষণা প্রথমদিনের মতো শেষ হয়েছে। 

পরে বিচারপতি জিনাত আরা ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রায় ঘোষণা মুলতবি করেন। 

রায় ঘোষণার সময় নিহত তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ, তার আইনজীবী ড. কামাল হোসেন ও ব্যারিস্টার সারা হোসেন উপস্থিত ছিলেন। 

পরে ব্যারিস্টার সারা হোসেন সাংবাদিকদের জানান, সোমবারের মতো রায় ঘোষণা শেষ হয়েছে। আদালত কাল (বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত রায় ঘোষণা মুলতবি করেছেন। 

এর আগে ২০১৬ সালের ১৩ মার্চ হাইকোর্টে এ মামলার বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়। সাক্ষ্যে তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ মোট ৭ কোটি ৭৬ লাখ ২৫ হাজার ৪৫২ টাকা ক্ষতিপূরণের কথা বলেছেন।

আদালতে ক্যাথরিন মাসুদের পক্ষে সাতজন, বাস মালিক সমিতির পক্ষে পাঁচজন ও রিলায়েন্স ইন্সুরেন্স কোম্পানির পক্ষে একজন সাক্ষ্য দিয়েছেন।

আরও পড়ুন>>
** 
তারেক মাসুদের ক্ষতিপূরণ মামলার রায় ঘোষণা শুরু

২০১১ সালের ১৩ আগস্ট মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার জোকা এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ এবং এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে।

এরপর ২০১৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি নিহতদের পরিবারের সদস্যরা মানিকগঞ্জে মোটরযান অর্ডিনেন্সের ১২৮ ধারায় বাসমালিক, চালক ও ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ চেয়ে দু’টি মামলা করেন।

সংবিধানের ১১০ অনুচ্ছেদ অনুসারে এ দু’টি মামলা হাইকোর্টে বদলির নির্দেশনা চেয়ে আবেদন করা হয়।

তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ এবং মিশুক মুনীরের স্ত্রী কানিজ এফ কাজী ও ছেলে সুহৃদ মুনীর দু’টি আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০১৩ সালের ৩ অক্টোবর হাইকোর্ট রুল জারি করেন। এ রুলের শুনানি শেষে ২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর দুই আবেদন মঞ্জুর করেন হাইকোর্ট।

পরে বিচারপতি জিনাত আরার নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে মামলা দু’টি শুনানির জন্য আসে। এর মধ্যে তারেক মাসুদের মামলার শুনানি শেষ হলো। অপরটির শুনানি ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছে।

আদালতে চুয়াডাঙ্গা বাস মালিকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সুবহান তরফদার ও রিলায়েন্স ইন্সুরেন্স কোম্পানির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ইমরান এ সিদ্দিকী ও ব্যারিস্টার এহসান এ সিদ্দিকী। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ইসরাত জাহান।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১৭
এমএ/

জার্মানিতে প্লেন-হেলিকপ্টার সংঘর্ষে নিহত ৪
এস্কয়ার নিট কম্পোজিট আইপিও’র বিডিংয়ের অনুমোদন
রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে স্পিকার-সিইসির সাক্ষাৎ বৃহস্পতিবার
দিনাজপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২
রাবিতে বাড়ছে বিদেশি শিক্ষার্থীর ভর্তি
যুক্তরাষ্ট্রে স্কুলে সহপাঠির গুলিতে নিহত ২
৩ মাস নয়, ডিএনসিসি নির্বাচন ৬ মাস স্থগিত
ছাত্রলীগ-নিপীড়ন বিরোধী শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে আহত ৫০
মনপুরা দ্বীপে মানসম্মত চিকিৎসা
কর্কটের নতুন বন্ধু লাভ, কুম্ভের সুখবরের সম্ভাবনা




Alexa