পহেলা বৈশাখেও পোড়াবে চৈত্রশেষের খরতাপ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চৈত্রের খরতাপে অতিষ্ঠ জীবন/ফাইল ফটো

ঢাকা: তপ্ত সূর্য চৈত্র মাসের শেষে এসে প্রখর হয়ে উঠছে আরও। রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের এলাকায় দেখা নেই বৃষ্টির। ভোরের ‍হালকা ঠাণ্ডা ভাব বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রূপ নিচ্ছে খরতাপে। পুড়িয়ে দিচ্ছে শরীর। বাড়ছে বিভিন্ন ভাইরাসজনিত রোগ-অসুখ। অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে নগরজীবন।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আগামী তিনদিনে তাপমাত্রা ৩৫ থেকে বেড়ে হবে ৩৭-৩৮ ডিগ্রি, যা অনুভব হবে ৪১-৪৩ ডিগ্রির মতো। এই শরীর পোড়ানো তাপে সুখবর নেই বৃষ্টির।

বাংলাদেশে আবহাওয়া অধিদপ্তর, আকু ওয়েদার, ওয়েদার নেটওয়ার্কসহ বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী এই তিনদিনে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা একেবারেই ক্ষীণ। আগামী ১২, ১৩ ও ১৪ এপ্রিল ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৩, ২২ ও ২৪ ডিগ্রি। যা বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হবে ৩৭-৩৮ ডিগ্রি পর্যন্ত।

চৈত্র সংক্রান্তি এবং বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন পহেলা বৈশাখে তাই শরীর জুড়ানো বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। উল্টো ক্রমবর্ধমান তাপ উৎসবের দিনগুলোতে মানুষকে দেবে বাড়তি ভোগান্তি।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, বৃষ্টির দেখা মিলতে পারে এপ্রিল মাসের ২০ তারিখের পর। তখন সম্ভাবনা রয়েছে টানা বৃষ্টির।

দেশজুড়ে নববর্ষ উদযাপনে বাড়তি চিন্তা তাপমাত্রা বৃদ্ধি। ঢাকা, রাজশাহী, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ৩৮ ডিগ্রি ছুঁতে পারে। যা অনুভব হবে সর্বোচ্চ ৪৩ ডিগ্রি পর্যন্ত।

দিনের খরতাপ আর ভোরে হালকা ঠাণ্ডা ভাব বাড়িয়ে দিচ্ছে সর্দি, কাশি, জ্বরের মতো ভাইরাসজনিত অসুখ। চৈত্র সংক্রান্তি ও পহেলা বৈশাখে যারা বাইরে বের হবেন তাদের প্রয়োজন বিশেষ সতর্কতার। গরমজনিত অসুখ থেকে রক্ষা পেতে বেশি বেশি করে পানি, লেবুর শরবত, দেশি ফল খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররা।

একইসঙ্গে বাইরে ফুটপাতে আখের রস, লেবুর শরবতসহ বিভিন্ন খাবার এড়িয়ে চলতে বলছেন তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৭
এএ

জামিন পেলেন অভিনেত্রী নওশাবা
অস্ত্রের মুখে প্রিমিয়ার ব্যাংকের ২৩ লাখ টাকা লুট
খাগড়াছড়িতে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৮ হাজার পশু
পুকুরে ডুবে যুবকের মৃত্যু
মহাখালী বাস টার্মিনালে কমেছে যাত্রীর চাপ
মোবাইলে কথা বলায় ব্যস্ত চালক, বাস উল্টে নিহত ১
যানবাহনের চাপে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল নেওয়া বন্ধ, যানজট
গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি করেন তিনি
তৎপর পুলিশ, নিমিষেই যানজট উধাও 
যশোরে বড় গরুর ক্রেতা নেই