থ্যালাসেমিয়া আক্রান্তদের বিবাহে মানা!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

থ্যালাসেমিয়া সচেতন কার্যক্রম প্রসঙ্গে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: থ্যালাসেমিয়া রোগ প্রতিরোধে তরুণ সমাজকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহেদ মালেক বলেছেন, বিবাহপূর্ব স্ক্রিনিং এর মাধ্যমে থ্যালাসেমিয়া রোগের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ দম্পতি নির্ণয় করে বিয়ে করা থেকে বিরত থাকা উচিত।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত থ্যালাসেমিয়া সচেতন কার্যক্রম প্রসঙ্গে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী।

জাহেদ মালেক বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ দম্পতির বিনামূল্যে গর্ভস্থ ভ্রুণ পরীক্ষা করা এবং থ্যালাসেমিয়া রোগীর জাতীয় রেজিস্ট্রি কার্যক্রম গ্রহণ করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ২০২৮ সালের মধ্যে বাংলাদেশে থ্যালাসেমিয়া থাকবে না বলে কার্যক্রমের টার্গেট নির্ধারণ করা হয়েছে।

বুধবার (১০ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে দেশব্যাপী এ কার্যক্রম চলবে। সকাল ১০টায় জাতীয় জাদুঘরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহম্মদ নাসিম কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

থ্যালাসেমিয়া একটি বংশগত রক্তের রোগ, এর যেহেতু স্থায়ী প্রতিষেধক নেই তাই একটি রূপরেখা প্রণয়ন করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, জানান স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরেরর মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন, জরিপ করে জানা গেছে থ্যালাসেমিয়া বাংলাদেশে একটি বড় স্বাস্থ্য সমস্যা। দেশে এক কোটি ১০ লাখ মানুষ অজ্ঞাতসারে থ্যালাসেমিয়া রোগের বাহক। প্রতিবছর ৭ হাজার শিশু 
থ্যালাসেমিয়া নিয়ে জন্ম নেয়। বর্তমানে রোগী সংখ্যা ৬০ হাজার।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল) ডা. কাজী জাহাঙ্গীর হোসেইন উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০১৮
কেজেড/এমজেএফ

হঠাৎ করেই নির্বাচনী পরিবেশটা খারাপ দেখছি: সরওয়ার
মোহনগঞ্জে অটোরিকশার ধাক্কায় বৃদ্ধা নিহত
গাছের সঙ্গে ধাক্কা, মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নিহত
রিয়ালের তালিকায় আর্জেন্টাইন ইকার্দি
নলডাঙ্গায় গৃহবধূ হত্যা মামলায় স্বামীসহ গ্রেফতার ৩
মৌসুমি নিম্নচাপে ৩ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা
বের হয়েছেন আইনজীবীরা, প্রবেশ করেছেন স্বজনেরা
শাহজালালে বিদেশি ওষুধসহ নারী আটক
নোয়াখালীতে ২ হাজার মিটার জাল ধ্বংস
নির্বাচনকে বানচাল করতে বিএনপি অপপ্রচার চালাচ্ছে: লিটন