সাভারে চলছে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা নর্থ ব্যুরো | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আল-নূর চক্ষু হাসপাতালে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা

সাভার (ঢাকা): মানব জীবনে চোখের কোনো বিকল্প নেই। চোখের যত্ন নেওয়া আমাদের দায়িত্ব।আর সেই চোখের যত্নে সাভারে চলছে ফ্রি চক্ষু ক্যাম্প।

বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই আল-নূর চক্ষু হাসপাতালের সহযোগিতায় অ্যাঞ্জেলিকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে চলছে বিনামূল্যে চক্ষু সেবা। 

দেশের দরিদ্র ও সাধারণ মানুষের মাঝে বিনামূলে চিকিৎসা সেবা দিতে আল-বাশার ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আল-নূর চক্ষু হাসপাতালের মাধ্যমে এ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।মূলত চোখে ছানি পড়া রোগীদের সেবা, অপারেশন ইত্যাদি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। চারজন অভিজ্ঞ ডাক্তারসহ ২৫ জনের একটি দল এই সেবা দিচ্ছে। 

এ বিষয়ে আল-বাশার ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর (বাংলাদেশ সেক্টর) ডা. আহমেদ তাহের জানান, তারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করে চলেছে। তার মধ্যে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৪৩টি জেলায় এধরনের সেবা প্রদান করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সমগ্র বাংলাদেশে এ সেবা প্রদান করা হবে। যারা আর্থিক ভাবে অস্বচ্ছল, চোখের চিকিৎসা করাতে পারছে না তাদের জন্যই এই মানবিক সেবা।

এখান থেকে বাছাই করা ৩০০ জনকে চোখের সানি অপারেশেন করা হবে। শুধু তাই নয়, অপারেশন পরবর্তী দুই মাসের ওষুধ, চশমা ইত্যাদি দেওয়া হবে। নিজস্ব পরিবহনে পৌঁছে দেওয়া হবে গন্তব্যে। ফলোআপ করা হবে দুই মাস পর্যন্ত। এছাড়াও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হবে বলেও বাংলানিউজকে জানান তিনি।

অ্যাঞ্জেলিকা ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রিন্সিপাল হাসিনা আক্তার বলেন, আমরা এ ধরনের মহৎ কাজের সঙ্গে একাত্ব হতে পেরে খুবই আনন্দিত। সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমাদের কিছুটা দায়বদ্ধতা থাকে সেখান থেকেই এ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত হওয়া।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৭
বিএস 
 

নানা আনুষ্ঠানিকতায় খাগড়াছড়িতে রথযাত্রা উদযাপন
চকরিয়ায় নদীতে গোসল করতে নেমে ৫ স্কুলছাত্র নিখোঁজ
আর্জেন্টিনা-স্পেন থেকেও শুভকামনা পাচ্ছে ক্রোয়েশিয়া
ডিরেক্টরস গিল্ডের নির্বাচন ৫ সেপ্টেম্বর
রথযাত্রা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত
সায়রার কহিনূর দীলিপ
অধূমপায়ী ব্যক্তিত্বের সম্মাননা পেলেন মেয়র নাছির
আহমাদকে দেশের প্রধান ক্বারী স্বীকৃতি ইত্তেহাদুল কুররার
আবার ইনজুরিতে তাসকিন
এরইমধ্যে 'চ্যাম্পিয়ন' রাকিটিচ-এমবাপ্পে: নেইমার