ঘরে এসে রোগীর টেস্ট করে দিচ্ছে থাইরোকেয়ার

ইকরাম-উদ দৌলা, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

থাইরোকেয়ারের স্টল। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকাঃ বাবা বার্ধক্যজনিত কারণসহ নানা রোগে অসুস্থ। বাইরে যাওয়ার জোর নেই শরীরে। ডাক্তার তবু বাসায় এনে দেখানো হয়েছে, কিন্তু টেস্ট করানো নিয়ে ব্যাপক চিন্তায় পড়েছেন ছেলে মকবুল হোসেন।

তাহমিনা হকও একই পরিস্থিতির মুখোমুখি। কেননা, তার ছেলেকে ডাক্তারের চেম্বার নিলেও এখন আর ডায়গনস্টিক সেন্টারে নেওয়া যাচ্ছে না।

রুবেল চৌধুরীর বাবার শরীরও খুব ভঙ্গ দশায়। উত্তরার বাসা থেকে জ্যাম ঠেলে ভাল কোনো হাসপাতালে নেওয়ার পরিস্থিতিই নেই।

তিনটি পরিবারের চিত্র আলাদা আলাদা হলেও সমস্যা আর প্রশ্ন একই। আর তাহলো কিভাবে রোগীর টেস্ট ঘরে বসেই করানো যায়।

এমন সমস্যার সমাধান কিন্তু বাংলাদেশেই আছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় চেইন ডায়গনস্টিক সেন্টার বা প্রিভেন্টিক কেয়ার ল্যাবরেটরি-থায়রোকেয়ার (Thyrocare) রোগীর ঘরে গিয়েই টেস্ট করানোর সুবিধা দিচ্ছে। এক্ষেত্রে কেবল একটি ফোন কলই যথেষ্ট। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধি বাসায় এসে রোগীর রক্ত এবং মূত্র সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় টেস্ট'র নমুনা নিয়ে যাবেন। আবার রিপোর্টও বাসায় পৌঁছে দেবেন।

থায়রোকেয়ার এ সেবাটি দিচ্ছে রক্ত ও মূত্রের সব ধরনের টেস্ট'র ওপর। এক্ষেত্রে বাসায় এসে নমুনা সংগ্রহ এবং রিপোর্ট পৌঁছে দেওয়ার জন্য ৩শ’ টাকা ব্যয় করতে হবে। আর নমুনা সংগ্রহের সময়ই পরিশোধ করতে হবে সংশ্লিষ্ট টেস্ট'র মূল্য। ক্যাশ ছাড়া কার্ডেও বিল পরিশোধ করা যাবে। আর এতে রয়েছে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৫ শতাংশ ছাড়।

প্রতিষ্ঠানটির ডিজিটাল মার্কেটিং নির্বাহী রাজীবুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, রক্ত ও মূত্রের পৃথক পৃথক টেস্ট ছাড়া প্যাকেজ ও রোগ ভিত্তিক টেস্ট করার সুযোগ রয়েছে।

প্যাকেজগুলোর মধ্যে রয়েছে-হেলথ স্ক্রিনিং প্যাকেজ ওয়ান পয়েন্ট ওয়ান, ওয়ান পয়েন্ট টু এবং ওয়ান পয়েন্ট থ্রি। ওয়ান পয়েন্ট ওয়ানের আওতায় ৩৫টি টেস্ট ৫০ শতাংশ ছাড়ে ৫ হাজার ৮শ’ টাকায় করা যাবে। ওয়ান পয়েন্ট টু প্যাকেজের আওতায় ৭০টি টেস্ট ৫০ শতাংশ ছাড়ে ৬ হাজার ৯শ’ টাকায় এবং ওয়ান পয়েন্ট থ্রি প্যাকেজের আওতায় ৭৬টি টেস্ট ১০ হাজার ৬শ’ টাকায় করা যাবে।

তুলনা করে দেখা গেছে, দেশের নামকরা যে কোনো ডায়গনস্টিকের চেয়ে অনেক কম খরচে টেস্ট করে দিচ্ছে থায়রোকেয়ার। বিশ্বমানের টেস্ট'র সুযোগ করে দেওয়ায় দিনদিন বেড়েই চলেছে এর সেবাগ্রহিতার সংখ্যা। প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে ২০১৪ সাল থেকে কার্যক্রম চালাচ্ছে তেমন কোনো প্রচার ছাড়াই।

থাইরোকেয়ারের স্টল। ছবি: জিএম মুজিবুরথায়রোকেয়ার হলো ভারতের মুম্বাই বেজইড চেইন ডায়গনস্টিক সেন্টার। পৃথিবীর ১৩টির বেশি দেশে সুনামের সঙ্গে এর কার্যক্রম দিনদিন বাড়ছে। বাংলাদেশে বাড্ডায় এর ল্যাবরোটরি।

ঘরে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করা ছাড়াও এরা রাজধানীর ধানমণ্ডি, মোহাম্মদপুর, মিরপুর, শান্তিনগর, ওয়ারি, উত্তরা এবং মালিবাগে নমুনা সংগ্রহের জন্য বুথ স্থাপন করেছে। চট্টগ্রামেও একটি বুথ রয়েছে। এছাড়া ৪৪ জেলায় বিভিন্ন ক্লিনিকের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহ করেও রিপোর্ট পাঠিয়ে দেয়।

থায়রোকেয়ারের সুনাম ছড়িয়ে পড়ার মূলে রয়েছে টেস্ট করার উপাদান ও মেশিন। সরাসরি জার্মানির সিমেন্স কোম্পানি থেকে এরা নমুনা পরীক্ষার রাসায়নিক দ্রব্য নিয়ে আসে। এরপর নিজস্ব কোল্ড চেম্বারে আইস জেল দিয়ে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করে। আর টেস্ট করাও হয় সিমেন্স যন্ত্রপাতি দিয়ে। ফলে রোগ সম্পর্কে টেস্টে'র সঠিক ফলাফল পাওয়া যায়। এতে রোগীর চিকিৎসায় যথাযথ পদক্ষেপ নিতে পারেন চিকিৎসকরা।

ঘরে বসেই থায়রোকেয়ারের সেবা নিতে 09666737373 ফোন করতে হবে। এছাড়া www.thyrocarebd.com ওয়েবসাইট ব্রাউজ করে বিস্তারিত জানা যাবে।

বলে রাখা দরকার, দেশে প্রতিদিন ঘরে গিয়ে গড়ে দৈনিক অন্তত ৬শ’ নমুনা সংগ্রহ করে থায়রোকেয়ার। সকালে নমুনা নিলে বিকেলেই পৌঁছে দেয় রিপোর্ট। নিজস্ব রেজিস্ট্রার্ড টেকনিশিয়ান ও ডাক্তার দ্বারা প্রস্তুত করা হয় প্রতিটি রিপোর্ট।

আর বৈশ্বিক বিবেচনায় প্রতিষ্ঠানটি বছরে ৫ দশমিক ৫ মিলিয়ন টেস্ট করে।

বাংলাদেশ সময়ঃ ১৫২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০১৭
ইইউডি/জেডএম

পত্নীতলায় এক ব্যক্তির গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুট পারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক ট্রাক
পুতিনকে যুক্তরাষ্ট্রে আমন্ত্রণ জানালেন ট্রাম্প
খুলনায় যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার
সরিষাবাড়িতে ট্রাক উল্টে ৩ শ্রমিক নিহত
ভরা মৌসুমেও খুলনায় কমছে না ইলিশের দাম
প্রস্তুতি ম্যাচে জয় পেলো টাইগাররা
বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে নারী নিহত
নীলের রাজ্যে হারিয়ে যেতে বিশ্বসেরা ৭ স্পট
মতিঝর্নায় র‌্যাবের সঙ্গে গুলিবিনিময়, নিহত ২