প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষায় নকলের দায়ে যুবক কারাগারে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী

কক্সবাজার: কক্সবাজারে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় মোবাইল ফোন ব্যবহার করে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ইব্রাহিম নামের এক যুবককে ১৫ দিনের দণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ইব্রাহীম সদরের ঈদগাঁও ইউনিয়নের জাগির পাড়ার বাসিন্দা হোছাইন আহমদের ছেলে। ঈদগাঁহ হাইস্কুলের খণ্ডকালীন শিক্ষক।

শুক্রবার (১১ মে) বিকেলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

সূত্র জানায়, কক্সবাজার শহরের আমেনা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে শুক্রবার অনুষ্ঠিত প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অংশ নিয়েছিলো ইব্রাহীম। এসময় পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ঘনঘন টয়লেটে গেলে তাকে সন্দেহ করেন হলে কর্মরত শিক্ষকরা। পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ হলেও তিনি মোবাইল নিয়ে গেছেন মর্মে সন্দেহ হলে কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেট তাকে চ্যালেঞ্জ করেন। কিন্তু ব্যাপারটি অস্বীকার করেন তিনি। পরে তার দেহ তল্লাশি করে মোবাইল ফোন ও ফোনের ম্যাসেজ ইনবক্সে পরীক্ষায় আগত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়। পরে নকল করার বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাকে ১৫ দিনের কারাদণ্ড ও ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজে না করার জন্য সতর্ক করেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নোমান হোসেন প্রিন্স বাংলানিউজকে জানান, পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে ওই পরীক্ষার্থীকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তার পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট দফতর।  তাকে বিকেলেই জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৭২৬ ঘণ্টা, মে ১২, ২০১৮
টিটি/ওএইচ/

আনুশকাকে কখনও মেনে নেবে না প্রভাসের পরিবার
ভুরুঙ্গামারীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত
ফ্রুটস ফিরনি
ফাইনালে অপরাজিত সাকিব!
মেধাবীদের মধ্যে ধনী-গরিবের ভেদাভেদ নেই
ইসলামী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত
সৈয়দপুরের মাদক সম্রাজ্ঞী বেবি পার্বতীপুরে গ্রেফতার
প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ ১০জন আটক
পুলিশের তৎপরতায় অপহৃত শিশুকে পেলো বাবা-মা
স্কুলের সোলার প্যানেলের ব্যাটারি চুরি