নির্বাচনী পরীক্ষায় অকৃতকার্যদের বিক্ষোভ-অগ্নিসংযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা

চাঁদপুর: চাঁদপুর সরকারি কলেজ ও চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক নির্বাচনী পরীক্ষায় অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা কলেজের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ ও সড়কে অগ্নিসংযোগ করেছে।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) দুপুর ২টায় চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অকৃতকার্য ২৪১ শিক্ষার্থী এ বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

একপর্যায়ে তারা কলেজের প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দেয়। এসময় কলেজের ভেতরে আটক পড়েন অনার্সের (সম্মান) প্রায় ৯শ’ শিক্ষার্থী। প্রায় ২ ঘণ্টা পর খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ এসে তালা খুলে আটকে থাকা শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে।

অপরদিকে বিকেল সাড়ে ৩টায় একই ইস্যু নিয়ে চাঁদপুর সরকারি কলেজের সামনে মরহুম আব্দুল করিম পাটওয়ারী সড়কে অগ্নিসংযোগ করে তারা। এতে ওই সড়কে প্রায় এক ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। আশপাশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে এসময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আফজাল হোসেন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) পরীক্ষার্থী প্রিয়াংকা ও ফারজানা জানায়, তারা আইসিটিসহ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক স্বল্পতার কারণে অকৃতকার্য হয়েছেন। কিন্তু তারা অন্যান্য সব বিষয়ে ভালো ফলাফল করেছেন। কলেজ কর্তৃপক্ষ এর আগে তাদের আশ্বাস দিয়েছিলেন তাদের পাবলিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হবে।

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরাঅভিভাবক দিলিপ ঘোষ ও শাহানারা বেগম জানান, কলেজের অধ্যক্ষ তাদের কয়েকদিন আগে বলেছেন এক বিষয়ে অকৃতকার্যদের সম্পর্কে বোর্ডে যোগাযোগ করে সিদ্ধান্ত জানাবেন। কিন্তু তিনি আজকে কলেজেই আসেননি। অধ্যক্ষের অনুপস্থিতিতে অন্য শিক্ষকরা জানিয়েছেন অকৃতকার্যদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের কোনো সুযোগ নেই। এ অবস্থায় আমরা কি করবো।

সরকারি মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ড. মো. মাসুদ হোসেন জানান, আমরা বোর্ডের নীতিমালা অনুযায়ী অভিভাবকদের জানিয়েছি অকৃতকার্যদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার কোনো সুযোগই নেই। তারা একত্রিত হয়ে কলেজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। শিক্ষা অধিদপ্তরের নীতিমালার বাইরে আমরা কোনো শিক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দিতে পারব না।

চাঁদপুর সরকারি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক নির্বাচনী পরীক্ষায় ৩ বিভাগে অংশগ্রহণ করে ৪১২ জন। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয় ২৯৮ জন। অকৃতকার্য হয় ১১৪ জন।

চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড. এএসএম দেলওয়ার হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, আমরা বোর্ডের নীতিমালার বাইরে কোনো কাজ করতে পারিনা। বোর্ডের নির্দেশনার আলোকে অকৃতকার্যদের বাদ দেয়া হয়েছে। কলেজের বাইরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও অগ্নিসংযোগ বিষয়ে কিছুই বলতে পারব না। কলেজের অভ্যন্তরে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৫ ঘণ্টা, ০৮ জানুয়ারি, ২০১৮
আরএ

৩ মাস নয়, ডিএনসিসি নির্বাচন ৬ মাস স্থগিত
ছাত্রলীগ-নিপীড়ন বিরোধী শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষে আহত ৫০
মনপুরা দ্বীপে মানসম্মত চিকিৎসা
কর্কটের নতুন বন্ধু লাভ, কুম্ভের সুখবরের সম্ভাবনা
সংস্কৃতি ও শিশুসংগঠক দেবাশীষ রায়ের বাবার মৃত্যু
‘খালেদা জিয়া জেলে যাবেন’
নবীর তরবারি জুলফিকারের রেপ্লিকা মালাক্কায়
ক্রেডিটটা মোস্তাফিজ-সানজামুলদেরই দিলেন তামিম
মাইজভাণ্ডারীর ওরশে লাখো ভক্তের ঢল
মালয়কন্যার সঙ্গে রাতের পুত্রাজায়া




Alexa