এস্কয়ার নিট কম্পোজিট আইপিও’র বিডিংয়ের অনুমোদন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন

ঢাকা: বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তোলনের অনুমোদন পেয়েছে এস্কয়ার নিট কম্পোজিট লিমিটেড।

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬২৫তম সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

একই সভায় শেয়ার কারসাজির দায়ে পূবালী ব্যাংকের এক পরিচালককে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও নানা অনিয়মের কারণে ফার্স্ট ক্যাপিটাল সিকিউরিটিজকে ১ লাখ টাকা জারিমানা করেছে কমিশন। এক প্রেস বিজ্ঞাপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, কমিশন সভায় এস্কয়ার নিট কম্পোজিট লিমিটেডকে আইপিও মাধ্যমে বাজার থেকে ১৫০ কোটি টাকা উত্তোলন করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে কোম্পানিটি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে শেয়ার বিক্রির জন্য বিডিং করতে পারবে। আর বিডিংয়ের মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে শেয়ারটির দাম। আইপিওর টাকা দিয়ে কোম্পানি ব্যবসা সম্প্রসারণ, ভবন নিমার্ণ, ডাইং ও ওয়াশিং প্লান্টের জন্য যন্ত্রপাতি কিনবে।

৩০ জুন, ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৫২ পয়সা। আলোচ্য বছরে কোম্পানির সম্পদ পুনর্মূল্যায়ন পরবর্তী শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ছিল ৪৫ টাকা ৮৩ পয়সা। আর পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া এনএভি ২৫ টাকা ৯৬ পয়সা। কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিডে।
 
এদিকে একই সভায় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পূবালী ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেনকে সুবিধাভোগী ব্যবসা করার কারণে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এতে বলা হয়, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন তার প্রিন্স করপোরেশন এর নামে পরিচালিত বিও হিসাবসমূহে শেয়ার ক্রয়ের ক্ষেত্রে পূর্ব ঘোষণা না দিয়ে কমিশনের নির্দেশনা ভঙ্গ করেছে। এছাড়া পূবালী ব্যাংক ২০১৩ সালের ব্যবসায় ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার দেয়। যা সুবিধাভোগী ব্যবসায়ী হিসেবে মোয়াজ্জেম আগে থেকেই জানতেন। ফলে ওই সময়ে ব্যাংকটির শেয়ার ক্রয় করে তিনি সিকিউরিটিজ আইন ভঙ্গ করেছেন।
 
আর এসব আইন ও নির্দেশনা ভঙ্গের কারণে বিএসইসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
এছাড়াও ফার্স্ট ক্যাপিটাল সিকিউরিটিজ গ্রাহকদের ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ার মার্জিন ঋণ দেয়, ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ার ক্রয়ে অর্থ সমন্বয় সুবিধা দেয় এবং নগদ হিসাবে মার্জিন ঋণ সুবিধা দেওয়ার মাধ্যমে সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘন করেছে। যে কারণে হাউজটিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অন্যদিকে গ্লোব সিকিউরিটিজ লিমিটেড থেকে ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ার ক্রয়ে অর্থ সমন্বয় সুবিধা দেওয়ার মাধ্যমে কমিশনের নির্দেশনা লঙ্ঘন করা হয়েছে। একারণে এ দুই ব্রোকারেজ হাউজকে বিএসইসি সতর্কপত্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৪০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০১৮
এমএফআই/এমএসএ/আরআইএস/

মেক্সিকোর নব নির্বাচিত নারী কংগ্রেস প্রতিনিধি অপহৃত
চুনারুঘাটে মাটিচাপা পড়ে ২ নারী শ্রমিকের মৃত্যু
জাহিদ হাসান এবার গার্ড!
বৃহস্পতিবার শহীদ মিনারে গোলাম সারওয়ারকে শেষ শ্রদ্ধা
চট্টগ্রামে পুড়েছে শতাধিক কাঁচাঘর, দোকান
উসকানি-সহিংসতার অভিযোগের ৫১ মামলায় গ্রেফতার ৯৭
সরকার-মন্ত্রিসভা গঠনে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে ইমরানের দল
কেরালায় বন্যায় ৭ দিনে ৬৭ জনের প্রাণহানি
‘বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকর হবে’
মিরপুর বোটানিক্যাল গার্ডেনে কলেজছাত্রের মরদেহ