মাত্র ২০ মিনিটেই প্রতিকৃতি এঁকে দিচ্ছেন মিজানুর

মহসিন হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চিত্রশিল্পী মিজানুর রহমান/ছবি: শাকিল

বাণিজ্য মেলা থেকে: চিত্রশিল্পী মিজানুর রহমান। কাজ করেন ধীর গতিতে। কথা বলেন নিচুস্বরে। তার দেখা মিললো ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার সুন্দরবন ইকো পার্কের ভেতরে। পার্কের এক কোনায় বসে আনমনে কাজ করছিলেন এ গুণী চিত্রশিল্পী।

কী করছেন? জানতেই চাইলে মাথা উঁচিয়ে একটু সময় নিয়ে বললেন, ছবি আঁকছি। কার ছবি? কেন সবার ছবিই আঁকি। আপনি চাইলে আপনাকেও এঁকে দিতে পারবো।

মেলার  ইকোপার্ক প্রতিষ্ঠাতা জামিউর রহমান লেমন জানান, মিজানুর রহমান অত্যন্ত উঁচু মানের একজন চিত্রশিল্পী। তার সামনে যে কাউকে বসিয়ে দিলে মিনিট ১৫/২০ এর মধ্যে হুবহু তার ছবিটা এঁকে দিতে পারেন।

ছবি আঁকার জন্য বেশ কয়েকবার পুরস্কার পেয়েছেন এই মিজানুর রহমান। চারুকলা থেকে ব্যাচেলর অব ফাইন আটর্স পাস মিজানুর বাংলানিউজকে জানান, তুলি কালি, পেন্সিল-স্কেচ, চারকল (কয়লার কালি), ওয়াটার কালার, অয়েল কালার দিয়ে ছবি আঁকেন। এজন্য ছবির কালার ভেদে ৩শ থেকে ১৫টাকায় ছবি আর্ট করা যাবে।   

একজন মানুষকে সামনে বসিয়ে হুবহু তার মতো ছবি এঁকে দিতে সময় নিচ্ছে ১৫ অথবা ২০মিনিট। তবে ওয়াটার কালারে আরও ১০ মিনিট বেশি লাগে।

এমনিতে সুন্দরবন ইকো পার্কের ভেতরে মেলার দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেয়া হয় না। বাইরে থেকে দেখতে হয় ইকো পার্ক। তবে কেউ যদি মিজানুর রহমানের কাছ থেকে তার নিজের ছবি আর্ট করে নিতে চান তাহলে তিনি ইকোপার্কের ভেতরে ঘুরেও দেখতে পারবেন বলে জানান মিজানুর রহমান।

পুরোনো ঢাকার নিউ পল্টনের ছেলে মিজানুরের শৈশব কেটেছে গাজীপুরের চান্দনায়। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় পড়াশুনা করেছেন। এখন থাকেন নিউ পল্টনে। এর আগে চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়ও ক্রেতা দর্শকদের ছবি এঁকেছেন বলে জানান তিনি।

**বাণিজ্যমেলায় ব্লেজারে গোল্ডেন অফার
বাংলাদেশ সময়: ১৭১৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০১৭
এমএইচ/এসএইচ

বগুড়ায় নিখোঁজের ৪ দিন পর শিশুর মরদেহ উদ্ধার
নগর ছাড়িয়ে গ্রাম, বাড়ছে কিশোর অপরাধী
নেই শাহরুখ, সেরা সালমান-অক্ষয়-ক্লুনি-কাইলি-মেসি-রোনালদো
সংগ্রামের মহানায়ক নেলসন ম্যান্ডেলা
ফুটবল মাতাতে আসছেন উসাইন বোল্ট
বিশ্বকাপ ফুটবল দেখতে গিয়ে রাশিয়ার জেলে বাংলাদেশি যুবক
সাগরে ট্রলার ডুবিতে এক জেলের মৃত্যু
মগবাজারে কিশোরী ‘হত্যা’র ঘটনায় আটক ১
পাথরঘাটার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, তলিয়ে গেছে ৪শ’ বাড়ি-ঘর
বিশ্বের সবচেয়ে বড় পরিবার, সদস্য ৩৪৬!