চট্টগ্রামে সেপটিক ট্যাংকে পড়ে ২ ভাইসহ ৩ জনের মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মারা যাওয়া শিশুদের স্বজনদের আহাজারি।

চট্টগ্রাম: নগরের খুলশী থানার ঝাউতলা এলাকায় সেপটিক ট্যাংকে পড়ে তিন তরুণের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে।

শুক্রবার (১০ আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে স্থানীয় ডিজেল কলোনির পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ইমরান হোসেন ইমু (২৯), মো. রুবেল প্রকাশ ড্যানিস (২০) এবং মো. সিফাত (১৫)। এদের মধ্যে ইমু ও ড্যানিস ভাই। তারা আকরাম হোসেনের ছেলে। সিফাতের বাবা মিজানুর রহমান।

সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মারা যাওয়া দুই ভাই। প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক আলাউদ্দিন তালুকদার বাংলানিউজকে বলেন, বিকেলে ফুটবল খেলার সময় তাদের বল সেপটিক ট্যাংকে গড়িয়ে পড়ে। বলটি নিতে গিয়ে সিফাত সেপটিক ট্যাংকে পড়ে যায়। তাকে উদ্ধার করতে ইমু ও রুবেল সেপটিক ট্যাংকে নামে। এ সময় গ্যাসের কারণে তিনজনই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে।

তিনি বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় ফায়ার স্টেশনের লোকজন তাদের উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে আনলে চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৭ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০১৮
এমআর/টিসি

জেসুসকে বাদ দিয়ে তিতের নতুন দল ঘোষণা
মঞ্চস্থ হলো ‘হাছনজানের রাজা’
ফেনীতে তৃতীয় লিঙ্গের লোকদের বাসস্থানের ব্যবস্থার আশ্বাস
নদীপথে আসছে গরু, চাঁদাবাজিরোধে নিরাপত্তার দাবি
নওগাঁয় হাজতির মৃত্যু
ছেলের পছন্দ বিবিএ, বাবা-মায়ের ইংরেজি!
নীলফামারীতে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত ৮টায়
প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চেয়েছেন ড. কামাল
নির্দিষ্ট সময়ে ঘাট ছাড়ছে না কোনো লঞ্চ
ফুলবাড়িয়ায় পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু