শিশু রাইফার অস্বাভাবিক মৃত্যু মেনে নেওয়া যায় না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাইফা খানের পরিবারকে সমবেদনা জানান বিএফইউজে সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল

চট্টগ্রাম: নগরের বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু রাইফার মৃত্যুতে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। একই সঙ্গে এ ঘটনায় দায়ীদের বিচারের আওতায় আনতে বিএফইউজে রাইফার পরিবারের পাশে থাকবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

রোববার (০৮ জুলাই) নগরের কাজীর দেউড়ি এলাকায় রাইফার বাবা সাংবাদিক রুবেল খানের সঙ্গে দেখা করতে এসে এসব কথা বলেন মনজুরুল আহসান বুলবুল।

এ সময় তিনি বলেন, রাইফা আমাদের সবার আদরের কন্যা। চিকিৎসকের অবহেলায় তার অকাল মৃত্যু কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে সরকারের পক্ষ থেকে যাতে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হয়, সে বিষয়ে বিএফইউজে প্রচেষ্টা চালাবে।

রাইফার নামে একটি ফাউন্ডেশন গঠন করা হবে। ফাউন্ডেশনটি চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন ও চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব যৌথভাবে পরিচালনা করবে। অসচ্ছল সাংবাদিকদের অসুস্থ সন্তানদের চিকিৎসায় এ ফাউন্ডেশন থেকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। যোগ করেন মনজুরুল আহসান বুলবুল।

সাংবাদিক রুবেল খানের বাসায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক ও বিএফইউজের নির্বাহী সদস্য সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, বিএফইউজের সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, চট্টগ্রাম সংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, সদস্য আসিফ সিরাজ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহকারী অধ্যাপক খ. আলী আর রাজী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ সভাপতি মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, অর্থ ‍সম্পাদক কাশেম শাহ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আহমেদ কুতুব, জিটিভির ব্যুরো প্রধান অনিন্দ্য টিটো প্রমুখ।

গত ২৯ জুন রাতে নগরের বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সাংবাদিক রুবেল খানের মেয়ে রাইফা খান। মৃত্যুর পর থেকেই রাইফার পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অব্যবস্থাপনা এবং দায়িত্বরত চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসা ও অবহেলার কারণেই অকাল মৃত্যু ঘটে রাইফার।

ওই দিন রাতেই এ জন্য দায়ী ডাক্তার এবং নার্সদের আটক করে চকবাজার থানা পুলিশ। কিন্তু ভোর রাতে তাদের ছাড়িয়ে আনতে থানায় গিয়ে অশোভন আচরণ এবং চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা বন্ধের হুমকি দেন বিএমএ নেতা ফয়সল ইকবাল চৌধুরী ও তার সহযোগীরা।

এ ঘটনায় সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের আন্দোলনের মুখে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকীকে প্রধান করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। শুক্রবার (০৬ জুলাই) প্রকাশিত প্রতিবেদনে চিকিৎসক ও নার্সদের অবহেলায় রাইফার মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করে তদন্ত কমিটি।

অন্যদিকে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে গঠিত তদন্ত কমিটি ম্যাক্স হাসপাতালের লাইসেন্সে ত্রুটিসহ ১১টি অসংগতি রয়েছে বলে জানায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪০ ঘণ্টা, জুলাই ০৮, ২০১৮
এমআর/টিসি

সিপিডিএল’র সিকিউরড-কমিউনিটি-লিভিং কনসেপ্ট প্রোপার্টি
ঢাকায় আসছেন জার্মান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
‘ত্রাসের রাজত্ব ভেঙে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা’
ভারতে উচ্চশিক্ষার সুযোগ নিতে আহ্বান শ্রিংলার
মাধবপুরে প্রেমিকাকে খুনের অভিযোগে যুবক আটক
হিমাচলে ভারতীয় যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত
মেয়ের বিয়ে নিয়ে যা বললেন মধু
কুমিল্লার এক মামলায় হাইকোর্টে খালেদার জামিন আবেদন
চট্টগ্রাম সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপনে চুক্তি সই
পানি উন্নয়ন বোর্ডে ৫৬ জন নিয়োগ