মোটেল সৈকত থেকে গ্রেফতার ২১০ শিবিরকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গোপন বৈঠক থেকে ২১০ শিবির নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

চট্টগ্রাম: নগরের পর্যটন করপোরেশনের মোটেল সৈকত থেকে গ্রেফতার ইসলামী ছাত্রশিবিরের ২১০ নেতা-কর্মী ও অজ্ঞাতনামা আরও ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।

রোববার (২৪ জুন) সকালে কোতোয়ালী থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক গোলাম ফারুক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসিন বাংলানিউজকে বলেন, নগরের স্টেশন রোডের মোটেল সৈকতে অভিযান চালিয়ে গোপন বৈঠক করার সময় শিবিরের ২১০ জনকে আটক করা হয়। পরে তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে রোববার সকালে অজ্ঞাতনামা আরও ১০জনকে আসামি করে মোট ২২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

ওসি মহসিন জানান, ‘পারাবার’ নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে তারা ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। সংগঠনটি শিবিরের চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণের সাংস্কৃতিক শাখা।

এদিকে শনিবার (২৩ জুন) রাতে সাতকানিয়ার রাস্তার মাথা থেকে জামায়াত নেতা, সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরী ভেবে কুতুবদিয়ার আধ্যাত্মিক সাধক হজরত আব্দুল মালেক শাহের (র:) ছেলে শেখ ফরিদ আল কুতুবীকে আটক করেছে পুলিশ। পরে ঘণ্টা-খানেক পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সাতকানিয়ায় থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুজিবুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, ভুলে এ রকম একটা ঘটনা ঘটেছে। পরে ঘণ্টাখানেক পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়:০৯৪০ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০১৮
জেইউ/টিসি

আগামী সপ্তাহে হাসপাতাল ছাড়বে থাই খুদে ফুটবলাররা
মৌলভীবাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২
রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের ২য় ইউনিটের কংক্রিট ঢালাই শুরু
বিমান টিকিটের বিড়ম্বনায় হজযাত্রীরা
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজনাথ সিংয়ের সাক্ষাৎ
তিন কারণে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে ক্রোয়েশিয়া
শাহজালালে স্বর্ণসহ আটক যাত্রী, নকল ওষুধও জব্দ
ব্যাংকে ৭৬৭ জন নিয়োগ
ভারতীয় ভিসা সেন্টার উদ্বোধন করলেন রাজনাথ সিং