মা’কে বাদ দিয়ে প্রাথমিকে মানোন্নয়ন সম্ভব নয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা ও মা সমাবেশ

চট্টগ্রাম: মা’কে বাদ দিয়ে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়ন সম্ভব নয় মন্তব্য করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মো. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার বলেছেন, ‘শুধু শিক্ষকদের দিয়ে প্রাথমিক শিক্ষায় গুণগত মানোন্নয়ন সম্ভব নয়। আগামীতে যারা দেশের দায়িত্বভার নেবেন, তাদের গড়ার মূখ্য দায়িত্ব পালন করছেন মায়েরা।’

সোমবার (১২ মার্চ) সকালে ‘মানসম্মত শিক্ষা, শেখ হাসিনার দীক্ষা’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাঁশখালী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা ও মা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিদ্যালয় গমনোপযোগী শতভাগ শিশুর ভর্তি নিশ্চিতকরণ, ঝরেপড়া রোধ ও মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ,জনসচেতনতামূলক সমাবেশে মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘জাতি গঠনের প্রধান ভিত্তি হচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা। জাতিকে বাঁচাতে হলে শিক্ষারমান নিয়ে কোন সমঝোতা নয়। শিক্ষার্থীদের মানসম্মত শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে মায়েদের যোগাযোগ স্থাপন করতে হবে। মা’দের প্রাথমিক শিক্ষায় সম্পৃক্ত করতে হবে। প্রাথমিক শিক্ষাকে এগিয়ে নিতে হলে শিক্ষারমানকে অক্ষুন্ন রাখতে হবে। বাংলাদেশকে অসাম্প্রদায়িক রাষ্টে পরিণত করতে হলে মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই।’

শিক্ষকদের উদ্দেশ্য করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী বলেন, ‘বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নিজের সন্তানের মতো করে দেখতে হবে এবং যত্ন নিতে হবে। প্রাথমিক স্তরে সরকার বড় বিনিয়োগ করেছেন। এ বিনিয়োগ জাতি গঠনে ভূমিকা রাখার জন্য সকলকে সজাগ থাকতে হবে। চলতি বছর থেকে প্রাথমিক স্তুরে আর কোন সংকট থাকবে না। শিক্ষক সংকট কাটিয়ে উঠেছে, জরাজীর্ণ স্কুল ভবন তেমন নেই বললেই চলে। প্রাথমিক স্তরকে যুগোপযোগী করতে সরকার নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও মত প্রকাশ করেন তিনি।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক চট্টগ্রাম (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্যে এবং বাঁশখালীর সংসদ সদস্য মো. মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী।

সভায় প্রাথমিকের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক মো. সুলতান মিয়া, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা, সহকারি জেলা পুলিশ সুপার মফিজুর রহমান পলাশ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান মোল্লা, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সালাউদ্দীন হীরা, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কেএম মোস্তাক আহমদ, থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুল গফুর, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকা, স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি শ্যামল কান্তি দাশ, স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. শহিদুল্লাহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, মার্চ ১২, ২০১৮
এসবি/টিসি

 

সিলেটে চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা লক্ষাধিক পিস
শনিবার থেকে লঞ্চের স্পেশাল সার্ভিস
নাট্যকার সেলিম আল দীনের জন্ম
কোটার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেলের মত চেয়েছে সরকার
কেরালায় বন্যায় ৩২৪ জনের মৃত্যু, আশ্রয় শিবিরে সোয়া ২ লাখ
ডিমলায় জামায়াতের শীর্ষ ৪ নেতা আটক
স্বাচ্ছন্দ্যেই নৌপথে ঘরে ফিরছেন মানুষ
বাংলাদেশ-ইন্দোনেশিয়া সম্পর্ক ঐতিহাসিক ও বন্ধুত্বপূর্ণ
মন সুস্থ রাখে খেলাধুলা, বুদ্ধি বাড়ায় দাবা
লুটেরাদের কাউকে ছাড়া হবে না: ইমরান খান