আন্তর্জাতিকমানের উচ্চশিক্ষা অর্জনের পরিবেশ প্রিমিয়ারে

চট্টগ্রাম প্রতিদিন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রিমিয়ারে আন্তর্জাতিকমানের উচ্চশিক্ষা অর্জনের পরিবেশ রয়েছে

চট্টগ্রাম: প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিকমানের উচ্চশিক্ষা অর্জনের চমৎকার পরিবেশ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত মেরি এনিক বুরদাঁ। সম্প্রতি নগরীর জিইসি মোড়ের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ পরিদর্শনে এসে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

 

মেরি এনিক বুরদাঁ বলেন, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সময়োপযোগী শিক্ষা গ্রহণ করে অনেক শিক্ষার্থী দেশ-বিদেশে গুরুত্বপূর্ণ পদে কৃতিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। আমার বিশ্বাস এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়া অগণিত শিক্ষার্থী বাংলাদেশ ও বাইরের রাষ্ট্রসমূহে গুরুত্বপূর্ণ কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনামকে আরও অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবেন।

এর আগে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় করেন তিনি। এসময় প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রান্স দূতাবাস ও আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ চট্টগ্রামের সহযোগিতায় একটি ল্যাঙ্গুয়েজ সেন্টার গড়ে তোলার আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।

ফরাসি রাষ্ট্রদূতের সাথে ছিলেন আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ-চট্টগ্রামের ডিরেক্টর ড. সেলভাম থরেজ, ফার্স্ট ডেপুটি ডিরেক্টর ড. গুরুপদ চক্রবর্তী ও কোর্স কো-অর্ডিনেটর পলাশ চক্রবর্তী।

মতবিনিময়কালে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ, ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদের সহকারী ডিন মঈনুল হক, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইফতেখার মনির, ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান সাদাত জামান খান, তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান টুটন চন্দ্র মল্লিক, অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ফারজানা ইয়াসমিন চৌধুরী, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ও সহকারী রেজিস্ট্রার কামরুল হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪২ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০১৮

এসবি/টিসি

গাজীপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় দুই কিশোরী নিহত
দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এরশাদ
রোনালদো নেই, রিয়ালের দর্শকও নেই!
৭০ হাজার ইয়াবাসহ নারী গ্রেফতার
ইমরানকে মোদীর অভিনন্দন
কোরবানির আগে ও পরে করণীয়
ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক, চাপ নেই ঘাটে
তারাকান্দায় গরুবাহী ট্রাক উল্টে নিহত ১
ঈদের পরেই কলকাতায় চালকবিহীন মেট্রোরেলের ট্রায়াল
ইমরানকে প্রধানমন্ত্রী ডাকতে গর্ববোধ করেন মাহিরা