মহানগরেও জনসভার দাবি মেয়রের, আশ্বাস হানিফের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মহানগরেও জনসভার দাবি মেয়রের, আশ্বাস হানিফের

চট্টগ্রাম: আগামী এপ্রিলের শেষের দিকে বা মে মাসের প্রথম সপ্তাহে মহানগরে একটি আওয়ামী লীগের জনসভা করার জোর দাবি জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।    

শনিবার (১০ মার্চ) সকালে ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে নগরীর মুসলিম হলে চট্টগ্রাম মহানগর, দক্ষিণ ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যৌথ বর্ধিত সভায় তিনি এ দাবি জানান।

পরে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ মহানগরেও একটি জনসভা আয়োজনের আশ্বাস দেন।

সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় পটিয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল ও স্বার্থক করতে জোর প্রস্তুতি নেওয়ার কথা জানিয়ে আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, পরিকল্পিতভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নয় বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশ পরিচালনা করছেন। সরকারের উন্নয়নকে ধারণ করে জনগণের আস্থা অর্জন করেছেন। ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করতে পটিয়া উপজেলা ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগই যথেষ্ট। তবে মহানগর ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও জনসভায় থাকবে। জনসভাকে সফল করতে আমরা সকলে বসে সিদ্ধান্ত নেব। বক্তিগত দ্বন্দ্ব থাকতে পারে, কিন্তু আমাদের সংগঠনের মধ্যে কোন দ্বন্ধ্ব নেই।

সিটি মেয়র আরও বলেন, মহানগরে মাঠ নেই এই কথা সঠিক নয়। কেননা, বর্তমানে পটিয়ায় জনসভার জন্য যে ভেন্যু নির্ধারণ করা হয়েছে, এমএ আজিজ স্টেডিয়াম, প্যারেড মাঠ, পলোগ্রাউন্ডসহ নগরে সেই পরিমাপের ৮টি মাঠ রয়েছে। কিন্তু পলোগ্রাউন্ডে মাসব্যাপী বাণিজ্যমেলা শুরু হয়েছে। ভেন্যু নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না। তবে আগামী এপ্রিলের তৃতীয়-চতুর্থ সপ্তাহে, বা মে মাসের প্রথম সপ্তাহে মহানগরে একটি জনসভা আয়োজনের জোর দাবি জানাচ্ছি।

পরে জনসভা উপলক্ষে দিক নিদের্শনামূলক বক্তব্যে মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছে ছিল চট্টগ্রামের জনসভাটি নগরীতেই করবেন। কিন্তু পলোগ্রাউন্ড মাঠে বাণিজ্যমেলা শুরু হওয়ায় এখানে করা সম্ভব হচ্ছে না। পটিয়ায় এ জনসভার ভেন্যু নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর মাসে বা ২০১৯ সালের জানুয়ারির প্রথম দিকে জাতীয় নির্বাচন হতে পারে। সেই প্রেক্ষিতে নির্বাচনের আগে জনসভা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সময় খুব কম। মহানগরেও একটি জনসভা করার বিষয়ে আমি প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করবো। পটিয়ায় জনসভার ভেন্যুতে কতজন লোকের সংকুলান হবে তা আমার জানা নেই। সরকারের নয় বছরের অভূতপূর্ব উন্নয়নের বার্তা সাধারণ জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। 

উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, দক্ষিণ জেলার সভাপতি মোসলেম উদ্দিন চৌধুরী, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম, সংসদ সদস্য ডা. আফছারুল আমিন, শামসুল হক চৌধুরী, দিদারুল আলম, নজরুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, ওয়াশিকা আয়েশা খান, উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ১০, ২০১৮

এসবি/টিসি

ফেনীতে তৃতীয় লিঙ্গের লোকদের বাসস্থানের ব্যবস্থার আশ্বাস
নদীপথে আসছে গরু, চাঁদাবাজিরোধে নিরাপত্তার দাবি
নওগাঁয় হাজতির মৃত্যু
ছেলের পছন্দ বিবিএ, বাবা-মায়ের ইংরেজি!
নীলফামারীতে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত ৮টায়
প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চেয়েছেন ড. কামাল
নির্দিষ্ট সময়ে ঘাট ছাড়ছে না কোনো লঞ্চ
ফুলবাড়িয়ায় পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু
তিন মাসের জন্য মাঠের বাইরে ডি ব্রইনা
যানবাহনের চাপ কমেছে পাটুরিয়ায়