সবজির দাম আরও কমছে, বাড়ছে মাছের

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম: নগরীর কাঁচাবাজারগুলো এখন শীতকালীন সবজিতে ভরা। শীতের শুরু থেকে কমতে থাকা সবজির দাম এই সপ্তাহে এসে আরও কমেছে। বিভিন্ন সবজির দাম ৫-১০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। এদিকে মাছের বাজার এখনও চড়া।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে নগরীর চকবাজার কাঁচাবাজার ও কাজীর দেউড়ি বাজারে গিয়ে দেখা যায়, বাধাঁকপি ৩০ টাকা, টমেটো ৩৫ টাকা, শিম ৫০ টাকা ও গাজর ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এই চারটি সবজি গেল সপ্তাহে যথাক্রমে ৩৫, ৪০, ৬০ ও ৫০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

এছাড়া অন্যান্য সবজির মধ্যে বেগুন ৩০ টাকা, আলু ২০ টাকা, মরিচ ৮০ টাকা, দেশি লাউ ২০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা, শিমের বিচি ১০০ টাকা, শসা ৩০ ও টিত করলা ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে মাছের বাজারে প্রতিকেজি রুই মাছ ৩৭০ টাকা, সরপুঁটি ৩২০ টাকা, কাতলা ৩৫০ টাকা, তেলাপিয়া ১৫০ টাকা ও লইট্টা মাছ ১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অথচ গত সপ্তাহে রুই মাছ ৩৫০, সরপুঁটি ৩০০, কাতলা ৩০০ ও তেলাপোয়া ১২০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল।

বিক্রেতারা বলছেন, দু'সপ্তাহ ধরে শীতকালীন শাকসবজি বাজারে প্রচুর পরিমাণে আসতে শুরু করেছে। সেই থেকে দামে পড়তির দিকে সবজির বাজার।  ইদানিং সবজির সরবরাহ আরও বেড়েছে, দামও আরও কমেছে। শীত যত বাড়বে সরবরাহ আরও বাড়বে, তখন দামও তত কমবে বলে ব্যবসায়ীরা মনে করছেন।

তবে মাছের বাজারে দাম বাড়ার কারণ হিসেবে সরবরাহ কম হওয়াকে দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা।

চকবাজার কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী মো.আলাহউদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, ‘পাইকারীতে প্রায় সবজির দাম কম দামে কিনতে পেয়েছি তাই খুচরা পর্যায়ে দাম কম। এছাড়া স্থানীয় সবজির সরবরাহ দিন দিন বাড়ছে, তাই সামনে আরও কমবে।’

মাছ দোকানি বাবু মিয়া বলেন, ‘শীত আসার পর থেকে বাজারে মাছের সরবরাহ কম।বিশেষ করে পুকুরের মাছ বাজারে আসছে না, তাই দাম বাড়তি।’

বাংলাদেশ সময়: ১০৫০ ঘণ্টা, ১৯ জানুয়ারি ২০১৭

জেইউ/টিসি

মেয়াদোত্তীর্ণ ও পচা ১২০ মণ খেজুর ধ্বংস
মাদক নির্মূলে কঠোর হওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর
বরগুনায় বজ্রপাতে কৃষক নিহত
খাদ্যের মান নিশ্চিতে কুড়িগ্রামে যৌথ বাজার মনিটরিং
বিএসটিআই’র কাজে গতিশীলতা আনছে সরকার
৬ হাজার ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
ঢাকায় এলেন গ্যারি কারস্টেন
তালিকার চেয়ে বেশি দামে বিক্রি করায় ১৮ দোকানিকে জরিমানা
ইহসানুল সভাপতি, জাহিদ নেওয়াজ সম্পাদক
ওলামা-মুক্তিযোদ্ধা-এতিমদের সঙ্গে রাষ্ট্রপতির ইফতার