আধুনিক যাত্রীছাউনিটি রেডি, ৩৫ লাখ টাকার এলইডি স্ক্রিন

আল রাহমান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জামালখানের আধুনিক যাত্রীছাউনিটি রেডি, পাশে ৩৫ লাখ টাকার এলইডি স্ক্রিন

চট্টগ্রাম: বাণিজ্যিক রাজধানীর প্রথম আধুনিক যাত্রীছাউনিটি এখন রেডি। মূল ছাউনিতে কড়া রোদ আর ভারী বৃষ্টিতে বসতে পারবেন বড়জোড় ২৪ জন। ফাস্টফুড, বুকস্টল আর নারী-পুরুষের পৃথক দুটি শৌচাগারের জন্য বেশিরভাগ জায়গা ছেড়ে দিয়েছেন নির্মাতারা। এটি নিয়ে বিরূপ সমালোচনাও আছে।   

তবে মূল যাত্রীছাউনির দুই পাশের ৪০০ ফুট দৃষ্টিনন্দন বাগানের মধ্যে বসতে পারবেন আরও শতাধিক মানুষ। ইতিমধ্যে স্কুল চলাকালীন এবং বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত নারী-শিশুসহ নানা বয়সী মানুষ এসব আসনে বসতে দেখা যায়।  

চলতি মাসে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন যাত্রীছাউনিটি উদ্বোধন করবেন জানিয়ে জামালখান ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন বাংলানিউজকে জানান, আমরা রেডি। ইস্পাহানির সৌজন্যে অঞ্জলিকা, হাস্নাহেনা, বাঁশঝাড়সহ সাড়ে চার হাজার গাছের চারা দিয়ে দৃষ্টিনন্দন বাগান করা হয়েছে। স্টিচ টোনের মাধ্যমে স্থাপন করা হয়েছে চীন থেকে আনা ১৮ ফুট বাই ৯ ফুটের এলইডি স্ক্রিন। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে চালুও করে দেখা হয়েছে।      

গা ছমছম করা ভুতুড়ে পরিবেশের ফুটপাতটিতে এখন ফুলের বাগান। ছবি: বাংলানিউজ

তিনি বলেন, হেলদি ওয়ার্ড হিসেবে পরিচিত জামালখানকে আকর্ষণীয় করতে উন্নত দেশগুলোর আদলে আমরা গার্ডেনিং করছি। নতুন রূপে সংস্কার করে ডা. এমএ হাশেম স্কয়ারে ঝরনা লাগিয়েছি। ঐতিহ্যবাহী ডা. খাস্তগীর স্কুলের দেয়ালে ৫৭০ বর্গমিটার পোড়ামাটির ম্যুরালে তুলে ধরেছি বাঙালির ইতিহাস। চলছে সেন্ট মেরি’স স্কুলের দেয়ালে ২০ মনীষীর ম্যুরাল তৈরির কাজ। পিডিবি অফিসার্স কলোনির নালার ওপর বার্ড জোন ও জামালখান যাত্রীছাউনির বিপরীত দিকে ফিশ জোন তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। প্রতি শুক্রবার জামালখান যাত্রীছাউনির পাশের ফুটপাতে স্ট্রিট ফেয়ার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করব আমরা। যাতে নবীন শিল্পী ও দলগুলো সংগীত পরিবেশনের সুযোগ পাবেন।  

শৈবাল দাশ সুমন গর্বের সঙ্গে বললেন, জামালখানে এতগুলো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সিনিয়রস ক্লাব, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব, চার্চ, মসজিদসহ অনেক প্রতিষ্ঠান ছিল। কিন্তু জামালখান মোড়টি ছিল ছিনতাইকারী, মাদকসেবী, বখাটেদের অভয়ারণ্য, অসচেতন মানুষের জলবিয়োগের উন্মুক্ত স্থান, সিনিয়রস ক্লাবের সামনে ডাস্টবিনটি ছিল আবর্জনার ভাগাড়, নাক চেপে ধরে চলাও ছিল কষ্টকর। আমরা সেই জামালখানের চেহারা পাল্টে দিতে পেরেছি। এ রকম ছোট ছোট উদ্যোগে পুরো শহরের চিত্র পাল্টে দেওয়া সম্ভব।

এজি চার্চ স্কুলে সন্তানকে দিয়ে উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা মা আয়েশা আকতার বলেন, একটা সময় ছিল মুখ চেপে ধরেও ডাস্টবিনের বিশ্রী গন্ধ থেকে রেহাই পেতাম না। প্রস্রাব মাড়িয়ে ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে হতো। সকাল-বিকাল গা ছমছম করত, এই বুঝি ব্যাগ টান দিল ছিনতাইকারী। এখন এটি স্বর্গোদ্যান হয়েছে। আমরা চসিককে ধন্যবাদ জানাই।

স্কুল চলাকালীন এবং বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত নারী-শিশুসহ নানা বয়সী মানুষ এসব আসনে বসতে দেখা যায়। ছবি: বাংলানিউজ

আয়েশা প্রশংসা করলেও আবদারের সুরে কামরুন নাহার বললেন, নামে যাত্রীছাউনি হলেও এটিকে ব্যবসাক্ষেত্রে পরিণত করা হয়েছে। যাত্রীরা এখানে উপেক্ষিত। রোদ-বৃষ্টি-কুয়াশায় হাতে গোনা কিছু যাত্রীই আশ্রয় নিতে পারবেন। বাকিরা কষ্ট পাবে। আগে সিটি করপোরেশনের যাত্রীছাউনির একপাশে ছোট্ট একটি দোকান থাকত। এখানে দুটি দোকান দেওয়া হয়েছে। পুরো শহরের বিলবোর্ড কাটা হলো এখানে একটি প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন এত বেশি লাগানো হয়েছে বিলবোর্ডকে হার মানিয়েছে। এলইডি টিভিতেও বিজ্ঞাপন চালানো হবে শুনেছি। টয়লেট অবশ্য নতুন সংযোজন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শৈবাল দাশ সুমন বাংলানিউজকে বলেন, দোকান ও শৌচাগার ইজারার টাকা ও ভাড়া সিটি করপোরেশন পাবে। এলইডি স্ক্রিনটি স্কুলের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত চলবে। এর মধ্যে আধঘণ্টা সরকার ও চসিকের উন্নয়নচিত্র প্রচারিত হবে। চট্টগ্রামের ইতিহাস-ঐতিহ্য প্রচার করা হবে। শিক্ষামূলক বিভিন্ন চ্যানেল যেমন ডিসকভারি, ন্যাশনাল জিওগ্রাফি, ডকুমেন্টারি প্রচার করা হবে। ফাঁকে ফাঁকে বিজ্ঞাপন থাকবে। জাতীয় দিবস ও খেলার সময় তা সম্প্রচার করা হবে। যদিও চট্টগ্রামে আগ্রাবাদ, নিউমার্কেট, জিইসিতে যে এলইডি স্ক্রিন বসানো হয়েছিল সেগুলো ব্যবসা সফল হয়নি। তারপরও জামালখানের এলইডি স্ক্রিন থেকে বছরে বড় একটি রাজস্ব চসিক পাবে। মাসুম ক্লথ স্টোরের ডিসপ্লের জন্য পাঁচ বছরের চুক্তি হয়েছে। চসিকের আয় না হলে এ ধরনের উন্নয়নকাজ করা কঠিন।  

জামালখানে ৫৭০ বর্গফুটের পোড়ামাটির ম্যুরাল উদ্বোধন

পোড়ামাটির শিল্পকর্মে লেখা হলো 'ইতিহাস'

বিশ্বমানের যাত্রীছাউনি হচ্ছে জামালখানে

বাংলাদেশ সময়: ১২০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮

এআর/টিসি

বরিশালে পুলিশ মারধরের ঘটনায় মামলা
ইউএসএইড বাংলাদেশের নতুন মিশন প্রধান ডেরিক ব্রাউন
পূর্ণতা পাচ্ছে ইবির লেক
সহপাঠী নাজিমের জন্য মানববন্ধনে খুবি শিক্ষার্থীরা
‘পাল্টাপাল্টি অভিযোগ প্রার্থীদের নির্বাচনী সংস্কৃতি’
এনইউ’র প্রিলিমিনারি-মাস্টার্সে ভর্তির সময় বাড়লো 
রাজবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু  
ঐক্যবদ্ধভাবে সঠিক কাজ করলে কেউ বেঠিক করতে পারবে না
২০২১ সালে রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের সরবরাহ শুরু হবে
ঢাবিতে সন্ত্রাসমুক্ত নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবি