সুরের আনন্দযজ্ঞে মাতালেন মালা দেব বর্মণ

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিল্পীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হচ্ছে। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বৃষ্টি ভেজা গ্রীষ্মের সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরে বেজে উঠলো তবলা-এশরাজের ধ্বনি। সেই ধ্বনির আনন্দযজ্ঞে রবীন্দ্রনাথের 'আজি আনন্দ সন্ধ্যা' গেয়ে উঠলেন শিল্পী মালা দেব বর্মণ।

শনিবার (২১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হলো ভারতের রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মালা দেব বর্মণ এবং বাংলাদেশের সেতার বাদক এবাদুল হক সৈকতের অসাধারণ পরিবেশনা। কণ্ঠ ও যন্ত্র সঙ্গীতের এ সঙ্গীতসন্ধ্যাটি আয়োজন করেছে ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টার (আইজিসিসি)।

প্রথম পর্বে মালা দেব বর্মণ পরিবেশন করেন মায়াবন বিহারিনি, প্রমোদে ঢালিয়া দিনু, বাংলার মাটি বাংলার জল, তাই তোমার আনন্দ, ঘরেতে ভ্রমর এলোসহ বেশ কিছু জনপ্রিয় গান। এসময় তবলায় ছিলেন প্রসেন রায়, এশরাজে তপন কুমার বর্মণ, কিবোর্ডে ডালিম কুমার বড়ুয়া এবং ওয়াহিদুজ্জামান।

আয়োজনের দ্বিতীয় পর্বে সেতার পরিবেশন করেন এবাদুল হক সৈকত। তিনি রাগ ইয়ামাম ক্যারিয়াম থেকে নিবেদন করেন। আয়োজনে তার সঙ্গে যন্ত্রে সঙ্গত করেন তবলায় বিশ্বজিৎ নট্ট এবং তানপুরায় শৈবাল শাহা।

সন্ধ্যার এ আয়োজন শেষে বাংলানিউজের সঙ্গে কথা হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের চেয়ারম্যান লীনা তাপসী খানের সঙ্গে। তিনি বলেন, গান ও সেতার, দুটোর সমন্বয় মনকে উদ্বেলিত করেছে। সঙ্গীতায়োজনটি দেখা, শোনা ও উপলব্ধির বিষয়। এগুলোর সঙ্গে আমাদের আরও নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে। এ ধরনের আয়োজনে আমাদের আরও বেশি বেশি অংশগ্রহণ করা উচিত।

অনুষ্ঠান শেষে শিল্পীদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন আইজিসিসির পরিচালক জয়শ্রী কুণ্ডু।

বাংলাদেস সময়: ০৯৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৮
এইচএমএস/এনএইচটি

দাউদকান্দিতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
লালমনিরহাটে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ধর্ষক গ্রেফতার
‘বুলেটের চেয়েও শক্তিশালী ব্যালট’
ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেলো অলিম্পিক পদকজয়ী ফিগার স্কেটারের
গোবিন্দগঞ্জে মাধ্যমিকের বই জব্দের ঘটনায় আটক ১
৩ ভাইয়ের প্রচেষ্টায় ৪ ঘণ্টায় ১ ইলিশ!
এখন সংগ্রাম জাতি হিসেবে গৌরব অর্জনের
কক্সবাজার লিংক রোডে ইসলামী ব্যাংকের ৩৩৭তম শাখা
রবীন্দ্রকথন ‘বাংলার মাটি বাংলার জল’
দু’হাত হারানো সিয়াম পেলো জিপিএ-৪