শ্রীদেবীর মৃত্যু নিয়ে ‘রহস্য’ বাড়ছে  

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবী। ছবি: সংগৃহীত

কলকাতা: শ্রীদেবীর আকস্মিক প্রয়াণে শোকাহত তার ভক্তরা, শোকের আবহে পুরো ভারতবর্ষ। তবে দু’দিন আগেও যে মৃত্যু ছিল বেদনাদায়ক আজ তা ‘রহস্যে’ আবৃত হয়ে ওঠছে। শ্রীদেবীর মৃত্যু নিয়ে রীতিমত রহস্য আরও ঘনীভূত হচ্ছে। 

প্রথমে শ্রীদেবীর মৃত্যু কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট বা হার্ট অ্যাটাকে হয়েছে বলা হলেও পরে তার ডেথ সার্টিফিকেটে লেখা হয়- ‘অ্যাকসিডেন্টাল ড্রয়িং’ অর্থাৎ দুর্ভাগ্যঃবশত জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে।
 
৫ ফুট ছয় ইঞ্চির মানুষটি কীভাবে বাথটাবের সামান্য পানিতে ডুবে গেল। শ্রীদেবীর কোনো সাড়া না পেয়ে ১৫ মিনিট পর বাথরুমের দরজা ভাঙেন স্বামী বনি কাপুর। 

বাথটাবে পড়ে যাওয়ার কোনো শব্দ পেলেন তিনি! বনি কাপুর জেরায় দুবাই পুলিশকে জানান, ডেকে কোনো শব্দ পাননি তিনি। পরে সন্দেহের বশে দরজা ভাঙা হয়। 

অপর একটি প্রশ্নে পুলিশ জানতে চায়, কোনো রেস্তোরাঁয় ডিনার করবেন, বুকিং করা ছিল কী? জবাবে বনি বলেন, কোথাও বুক করা ছিল না। 

তবে এটা নিশ্চিত, এটা কোনো সাধারণ মানুষের ডিনার নয়। এক সেলিব্রেটির ডিনার, তবে কেন আগে থেকে বুক করা হয়নি-এসব বিষয় নিয়েও প্রশ্নও ঘোরপাক খাচ্ছে অনেকের মনে। 
 
আবার দুবাইয়ের অন্যতম নামজাদা মিডিয়া হাউস ‘গালফ’। এমন এক বড় প্রতিষ্ঠান বারবার দাবি করছে, তাদের কাছে তথ্য আছে, শ্রীদেবীর রক্তে অ্যালকোহল পাওয়া গেছে। তাহলে ডেথ সার্টিফিকেটে তা উল্লেখ নেই কেন? তা নিয়েও জল্পনা তুঙ্গে।
 
এদিকে দিল্লির সংসদ সদস্য (এমপি) অমর সিং ও বিজেপির এমপি সুব্রাহ্মান স্বামী দুজনেই দাবি করে আসছেন, তাদের জীবদ্দশায় শ্রীদেবীকে কখনও মদ খেতে দেখেননি। কিন্তু গলফ দাবি করছে, উল্টো। আবার সুব্রাহ্মান স্বামী আরও সুর চড়িয়েছেন তার মৃত্যু নিয়ে।

তিনি বলেন, ‘এর আগে আর এক বলিউড তারকার দিব্যা ভারতীর মৃত্যূ মদ খেয়ে আত্মহত্যা দেখানো হয়েছিল। পরে অলিখিতভাবে জানা যায়, দাউদের হাত ছিল দিব্যা ভারতীর মৃত্যুতে। এখানে প্রায় একই ধরনের দাবি করা হচ্ছে। তাও আবার দুবাইতে। এতে দাউদ চক্র জড়িত আছে বলে তিনি সন্দেহ করছেন।’

হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ সামনে আনারও দাবি করেন সুব্রাহ্মান স্বামী।
 
এদিকে দুবাই পুলিশ টু্ইট করে জানিয়েছে, শ্রীদেবীর মরদেহ মেডিসিনের মাধ্যমে সংরক্ষণ করা হয়েছে। যদি আজ তার পার্থিব শরীর ভারতে ফেরে তাহলে কোন প্লেনে তোলা হবে তা নিয়েও দ্বিধায় দুবাই সরকার। মনে করা হচ্ছে, মুকেশ আম্বানীর বিশেষ প্লেনে আসার পরিকল্পনা থাকলেও তা বাতিল হতে পারে।

তবে এখনও ধোঁয়াশার মধ্যে শ্রীদেবীর মরদেহ মুম্বাই ফেরা নিয়ে। যদিও মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) আসে তাও রাতের আগে আসবে না এমনটাই মনে করছে শ্রীদেবীর পরিবার। এর মধ্যে অর্জুন কাপুর পৌঁছেছেন দুবাই, তার মরদেহ আনতে।
 
তবে ‘বিজলী কি রানী’ মৃত্যুর পরও পদে পদে বিজলী চমক দিচ্ছে দুবাই থেকে গোটা ভারতবাসীকে-এ কথা নিশ্চিত।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৩০ঘণ্টা, ২৭ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
ভিএস/এমএ

দেশের অবস্থা জাতিসংঘে তুলে ধরেছি: ফখরুল
অর্থ পাচারের অভিযোগে ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
এশিয়া কাপ থেকে শ্রীলঙ্কার বিদায়
বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত হয়েছে
ঘড়ির পেন্ডুলাম আবিষ্কার করেন যে মুসলিম বিজ্ঞানী
প্রাবন্ধিক মোতাহের হোসেন চৌধুরীর প্রয়াণ
রাজশাহীতে ইয়াবাসহ ২ মাদক বিক্রেতা আটক
সিরাজগঞ্জে ট্রাকচাপায় শিশুর মৃত্যু
বড়াইগ্রামে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম
লালমনিরহাটে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত