বড়াইগ্রামে পৌর ও ইউপি নির্বাচনী সরঞ্জাম হস্তান্তর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নাটোর: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া পৌরসভা এবং জোয়ারী ও মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী সরঞ্জাম হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বিকেল পর্যন্ত ভোট কেন্দ্রগুলোর প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত নিরাপত্তা কর্মীদের কাছে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন এসব সরঞ্জাম হস্তান্তর করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- জোয়ারী ও মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে দায়িত্বরত রির্টানিং কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ইকবাল মাহমুদ, নাটোর সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

২৮ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার ১২টি কেন্দ্রের ৬৭টি কক্ষে এই ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করা হবে। তবে মামলা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ তিন মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে।

১২ নম্বর ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৭৫৭ জন। পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডের মোট ২১ হাজার ৩০৯ জন ভোটার নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১০ হাজার ৫৪১ জন এবং নারী ভোটার ১০ হাজার ৭৬৮ জন।

অপরদিকে এক নম্বর জোয়ারী ইউনিয়নের ১৩টি কেন্দ্রের ৮২টি কক্ষে এবং পাঁচ নম্বর মাঝগাঁও ইউনিয়নের ১২টি কেন্দ্রের ৭৭টি কক্ষের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

এক নম্বর জোয়ারী ইউনিয়নের মোট ২৮ হাজার ৫৫৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১৪ হাজার ২৯ জন এবং নারী ভোটার ১৪ হাজার ৫২৮ জন।

পাঁচ নম্বর মাঝগাঁও ইউনিয়নের মোট ২৪ হাজার ৩৪৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১২ হাজার ৩২ জন এবং নারী ভোটার ১২ হাজার ৩১১ জন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও বনপাড়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, এসব কেন্দ্রের নিরাপত্তার জন্য আটজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের  নেতৃত্বে সশস্ত্র পুলিশসহ ১ হাজার ৪৪ জন পুলিশ সদস্য, ৬১২ জন আনসার ভিডিপি ও সাধারণ আনসার নিরাপত্তা কাজে নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া ১২ প্লাটুন বিজিবি এবং র‌্যাব সদস্যরা স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নিয়োজিত থাকবেন।

তিনি আরও জানান, আটুয়া কেন্দ্রে মামলা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে উচ্চ আদালতের নির্দেশে তিন মাসের জন্য ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

বনপাড়া পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান মেয়র কেএম জাকির হোসেন ও বিএনপি প্রার্থী মহুয়া নূর কচি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে এক নম্বর জোয়ারী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দু’জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পাঁচ নম্বর মাঝগাঁও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১২ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭
আরবি/

জুরাইনে লোহার অ্যাঙ্গেলে চাপা পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু
আমাদের গণিত অলিম্পিয়াড
চাঁদে মানুষের প্রথম পদার্পণ
সাবধানে থাকুন কর্কট, দাম্পত্য দ্বন্দ্ব মকরের
কোটা আন্দোলনের পেছনে বিএনপি-জামায়াত
আ’লীগ নেতাদের দাবির মুখে ওসি বাবুল মিঞাকে প্রত্যাহার
ফেল করায় আত্মহত্যা করলেন ঐশ্বর্য
২০০ টন স্বর্ণসহ নিখোঁজ সেই রুশ জাহাজ দ. কোরিয়ায়
স্বপন হত্যায় রত্না-মামুনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি
চসিক পরিচালিত কলেজে পাসের হার ৭০.৭৮ শতাংশ